মীর মোশাররফ হোসেনের ১৬৭তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ১০:২৯ অপরাহ্ণ ,১৫ নভেম্বর, ২০১৪ | আপডেট: ১০:২৯ অপরাহ্ণ ,১৫ নভেম্বর, ২০১৪
পিকচার

স্টাফ রিপোর্টার : বাংলা সাহিত্যের অন্যতম দিকপাল, ঊনবিংশ শতাব্দীর সর্বশ্রেষ্ঠ মুসলিম সাহিত্যিক, কালজয়ী উপন্যাস বিষাদ সিন্ধু রচয়িতা মীর মশাররফ হোসেনের ১৬৭তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আজ শনিবার সকালে রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের পদমদী মীর মশাররফ হোসেন স্মৃতিকেন্দ্রে এক আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বাংলা একাডেমীর আয়োজনে আন্তর্জাতিক লোক বিজ্ঞানী ও বাংলা একাডেমীর মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসক মো. রফিকুল ইসলাম খান। প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন,বাংলা সাহিত্যের খ্যাতিমান কথাসাহিত্যিক অধ্যাপক হাসান আজিজুল হক। ‘মীর মশাররফ হোসেনঃ প্রজ্ঞা ও পরম্পরা’ বিষয়ক প্রবন্ধ পাঠ করেন, কথা সাহিত্যিক জাকির তালুকদার।

অনুষ্ঠানে আলোচক হিসেবে ছিলেন বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রাজশাহী শাহ্ মখদুম কলেজের অবঃ অধ্যক্ষ অধ্যাপক তসিকুল ইসলাম রাজা, বালিয়াকান্দি কলেজের অবঃ অধ্যক্ষ ও মীর মশাররফ হোসেন সাহিত্য পরিষদের সভাপতি বিনয় কুমার চক্রবর্ত্তী, মীর মশাররফ হোসেন ডিগ্রি কলেজের অধ্যাপক ভবেন্দ্র নাথ বিশ্বাস।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, প্রবন্ধকার কথাসাহিত্যিক জাকির তালুকদার,বালিয়াকান্দি উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুল হাসান, মীর মশাররফ হোসেন ডিগ্রী কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থীবৃন্দ, মীর মশাররফ হোসেন স্মৃতি কেন্দ্রে কর্মরত জাহিদুল ইসলাম চৌধুরী ও খন্দকার জিয়া প্রমুখ।

আলোচনা সভা শেষে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

উল্লেখ্য, মীর মশাররফ হোসেন ১৮৪৭ সালের ১৩ নভেম্বর কুষ্টিয়া জেলার কুমারখালী উপজেলা লাহিনীপাড়া গ্রামের মাতুলালয়ে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯১১ সালের ১৯ ডিসেম্বর রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের পদমদী গ্রামে মারা যান। পদমদীতে তাকে দাফন করা হয়। সাহিত্যিক মশাররফ হোসেন উজ্বল দৃষ্টান্ত রেখে গেছেন। গল্প, উপন্যাস, নাটক, কবিতা, আত্মজীবনী, প্রবন্ধ ও ধর্মবিষয়ক ৩৭টি বই রচনা করেছেন মীর মোশাররফ হোসেন। সাহিত্য রচনার পাশাপাশি কিছুদিন তিনি সাংবাদিকতাও করেছেন। মীর মশাররফ হোসেনের রচনাসমগ্রের মধ্যে রত্নাবতী, গৌরি সেতু, বসন্ত কুমারী, জমিদার দর্পণ, সংগীত লহরী, উদাসীন পথিকের মনের কথা, মদিনার গৌরব, বিষাদ সিন্ধু, গো-জীবন, বেহুলা গীতাভিনয়, গাজী মিয়ার বোস্তানী, মৌলুদ শরীফ, মুসলমানের বাঙ্গালা শিক্ষা, বিবি খোদেজার বিবাহ, হযরত ওমরের ধর্মজীবন লাভ প্রভৃতি উল্লেখযোগ্য।

 

আপডেট : শনিবার নভেম্বর ১৫,২০১৪/ ১০:২৫ পিএম/ আশিক


এই নিউজটি 1142 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments