,

পাংশায় গুলিবিদ্ধ উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানের মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার : রাজবাড়ীর পাংশায় গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও জেলা কৃষক লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মুন্সী নাদের হোসেন (৬৫) মারা গেছেন। গতরাত সাড়ে ১২টার দিকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। এর আগে গতকাল শুক্রবার সকালে দূর্বৃত্তদের ছোড়া গুলিতে গুরুতর আহত হন তিনি।

ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক স্বপন কুমার বিশ্বাস জানান, নাদের হোসেন তাঁর ঠোঁটের নিচে ও বুকের বাম দিকে দুটি বুলেটবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হন । আহত অবস্থায় গতকাল শুক্রবার সকালে তাকে ফরিদুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয় । পরে শুক্রবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

ফরিদপুর কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আমিনুজ্জামান জানান, ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে। পরে পাংশা থানার পুলিশ আইনানুগ ব্যবস্থা নেবে।

এদিকে পাংশা উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান মুন্সি নাদের হোসেনের মৃত্যুর খবর তার নির্বাচনী এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে সেখানে স্থানীয়দের মধ্যে শোকের ছাঁয়া নেমে আসে।

উল্লেখ্য, গতকাল শুক্রবার সকাল ৮টার দিকে মুন্সী নাদের হোসেন উপজেলার হাবাসপুর ইউপির কাচারীপাড়া গ্রামস্থ নিজ বাড়ি থেকে জনৈক কাশেম আলীর মোটরসাইকেল যোগে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কমিটি গঠন সভায় যোগদান করতে পাংশা শহরের উদ্দেশ্য রওনা হন। এসময় তিনি কাচারীপাড়া বাজারের দক্ষিণ পার্শ্বে আজগর মুন্সীর বাড়ির সামনে পৌঁছালে সড়কের উপর ওৎ পেতে থাকা অস্ত্রধারী দৃর্বৃত্তরা মোটর সাইকেলের গতিরোধ করে তাকে লক্ষ করে পরপর ২ রাউন্ড গুলি করে পালিয়ে যায়। স্থানীয় লোকজন তাকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে পাংশা হাসপাতালে এবং পরবর্তীতে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে। সেখানেই শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

নিহতের ছোট ভাই আবু সালেক ও বড় ছেলে এনামুল সরকারের কাছে এ হত্যার বিচার দাবি করেছেন।

 

 

আপডেট : শনিবার নভেম্বর ২২,২০১৪/ ১১:৪০ এএম/ আশিক

 

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর