পাংশার ভাইস চেয়ারম্যান নাদের মুন্সীর হত্যা মামলায় সন্দিগ্ধ আসামী আনছার মুন্সী গ্রেপ্তার

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ১২:৩৭ অপরাহ্ণ ,৩ ডিসেম্বর, ২০১৪ | আপডেট: ১২:৩৭ অপরাহ্ণ ,৩ ডিসেম্বর, ২০১৪
পিকচার

মোক্তার হোসেন : রাজবাড়ী জেলার পাংশা থানা পুলিশ গতকাল ২রা ডিসেম্বর রাত ৮টার দিকে উপজেলার কাচারীপাড়া গ্রামে বিশেষ অভিযান চালিয়ে পাংশা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও জেলা কৃষক লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নাদের মুন্সীকে গুলি করে হত্যা মামলার সন্দিগ্ধ আসামী আনছার মুন্সী (৫০)কে গ্রেপ্তার করেছে। সে কাচারীপাড়া গ্রামের মৃত বারেক মুন্সীর ছেলে। তার বাড়ীর সামনেই প্রকাশ্য দিবালোকে সন্ত্রাসীরা ভাইস চেয়ারম্যান নাদের মুন্সীকে নির্মম ভাবে গুলি করে গুরুতর আহত অবস্থায় রাস্তার উপর ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।

জানাগেছে, পাংশা থানার ওসি মোহাম্মদ আবুল বাশার মিয়ার নেতৃত্বে এস.আই হাফিজুর রহমানসহ সঙ্গীয় পুলিশ দল গতকাল মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে বিশেষ অভিযান চালিয়ে কাচারীপাড়া বাজার থেকে তাকে গ্রেপ্তার করেন।

ওসি মোহাম্মদ আবুল বাশার মিয়া জানান, ধৃত আসামী আনছার মুন্সী পাংশা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান নাদের মুন্সীকে গুলি করে হত্যা মামলার সন্দিগ্ধ আসামী। তার বাড়ীর সামনে রাস্তার উপর ভাইস চেয়ারম্যান নাদের মুন্সীকে সন্ত্রাসীরা গুলি করে অপরাধ সংঘটনের ক্ষেত্রে তার সহযোগিতা রয়েছে বলে তথ্য রয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২১ নভেম্বর সকাল পৌনে ৮টার দিকে ভাইস চেয়ারম্যান নাদের মুন্সী কাচারীপাড়া নিজ গ্রামের বাড়ী থেকে সঙ্গীয় আবুল কাশেমের মোটর সাইকেল যোগে পাংশা শহরে যাওয়ার পথে কাচারীপাড়া বাজারের অনুমান ১শ’ গজ দক্ষিণে জনৈক রব্বানের বাঁশ বাগানের পূর্বপার্শ্বে পৌছুলে পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে আগ্নেয়াস্ত্রসহ ওৎ পেতে থাকা মনজুর মিয়া তার মোটর সাইকেলের গতিরোধ করে। আসামীগনসহ অজ্ঞাতনামা ৫/৬জন আসামী মোটর সাইকেলের চারদিক থেকে ঘিরে ধরে। আসামী মনজুর মিয়া রাস্তার পশ্চিম পার্শ্ব থেকে মোটর সাইকেলের সামনে দিয়ে রাস্তার বাম পার্শ্বে গিয়ে কোমর থেকে দু’টি আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে নাদের মুন্সীকে হত্যার উদ্দেশ্যে গুলি করে। একটি গুলি তার চোয়ালে এবং অপর গুলি তার পেটে বিদ্ধ হয়। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তার মোটর সাইকেল চালক কাশেম তাকে দ্রুত পাংশা হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। রাত সাড়ে ১২টার দিকে চিকিৎসাকালীন অবস্থার তার মৃত্য হয়।

এ ঘটনায় নিহতের বড় ভাই বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালেক মুন্সী বাদী হয়ে কাচারীপাড়া গ্রামের ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মতিয়ার মিয়ার ছেলে মনজুর মিয়াকে প্রধান করে ১০জনের বিরুদ্ধে পাংশা থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলার প্রেক্ষিতে থানা পুলিশ পৃথক অভিযান চালিয়ে ভাইস চেয়ারম্যান নাদের মুন্সী হত্যা মামলা নং-১৭, তাং-২৩/১১/২০১৪, ধারাঃ ৩০২/৩৪ পেনাল কোড এর এজাহার নামীয় আনিছুর রহমান ও ফারুক হোসেনসহ ওই মামলার সন্দিগ্ধ অপর আসামী কাচারীপাড়া গ্রামের ইউসুফ হোসেন ওরফে জটাকে গ্রেপ্তার করে। তারা বর্তমানে জেল হাজতে আটক রয়েছে। ধৃত আসামীদের মধ্যে পুলিশ আনিছুর রহমান ও ফারুক হোসেনকে ২দিনের এবং ইউছুফ হোসেন ওরফে জটাকে ১দিনের রিমান্ডে নেয়। ঘটনার পর থেকে কাচারীপাড়া গ্রামে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

পাংশা উপজেলা আওয়ামীলীগের নিবেদিত প্রাণ বলে পরিচিত ভাইস চেয়ারম্যান নাদের মুন্সীকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় অত্র এলাকার সর্বস্তরের মানুষের মাঝে প্রচন্ড ক্ষোভের সৃষ্টি করেছে।

 

 

আপডেট : বুধবার ডিসেম্বর ৩,২০১৪/ ‌১২:৩৫ পিএম/ আশিক

 

 


এই নিউজটি 1000 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments