পাংশায় ভাইস চেয়ারম্যান নাদের মুন্সী হত্যা মামলায় দু’সপ্তাহে ৫জন গ্রেপ্তার

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ১:০৮ অপরাহ্ণ ,৪ ডিসেম্বর, ২০১৪ | আপডেট: ১:০৮ অপরাহ্ণ ,৪ ডিসেম্বর, ২০১৪
পিকচার

মোক্তার হোসেন : রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও জেলা কৃষক লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নাদের মুন্সীকে গুলি করে হত্যা ঘটনার নেপথ্য নিয়ে জনমনে নানা প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে। থানা পুলিশ এ মামলায় গত দু’ সপ্তাহে পৃথক অভিযান চালিয়ে ৫জন আসামীকে গ্রেপ্তার করেছেন।

গ্রেপ্তারকৃত হলেন, কাচারীপাড়া গ্রামের আনিছুর রহমান, সেলিম হোসেন, ইউসুফ হোসেন ওরফে জটা, আনছার মুন্সী ও রঘুনন্দপুর গ্রামের ফারুক বিশ্বাস। এদের মধ্যে আনছিুর রহমান, সেলিম হোসেন ও ফারুক বিশ্বাস এজাহারভুক্ত আসামী। ইউসুফ হোসেন জটা ও আনছার মুন্সী এ মামলার সন্দিগ্ধ আসামী। ধৃত আসামীরা বর্তমানে রাজবাড়ী জেল হাজতে আটক রয়েছেন।

জানা গেছে, নাদের মুন্সী ছিলেন অত্র এলাকার আওয়ামী লীগের একজন ত্যাগী নেতা। প্রকাশ্য দিবালোকে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীর গুলিতে তার মৃত্যু যেন কেউই মেনে নিতে পারছেন না। এই নির্মম ঘটনার নেপথ্য কি? এমন প্রশ্ন সবার মাঝে ঘুরপাক খাচ্ছে।

স্থানীয় লোকজন জানায়, নাদের মুন্সীকে ২১ নভেম্বর সকালে প্রকাশ্য দিবালোকে গুলি করার ঘটনার পরপরই ঘটনার নায়ক হিসেবে মনজু মিয়ার নাম লোকমুখে আলোচিত হয়। মনজু মিয়া হাবাসপুর ইউপির ৬নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাচারীপাড়া গ্রামের বাসিন্দা মতিয়ার মিয়ার ছেলে। মনজু মিয়া কয়েক মাস আগে সংঘটিত হাবাসপুর ইউপির গঙ্গানন্দদিয়া গ্রামের রং মিস্ত্রি সাগর সরদার (২৫) হত্যা মামলা