রাজবাড়ীর বসুন্ধারা আবাসিক হোটেল থেকে নারী পাচারকারী দলের দুই সদস্য গ্রেফতার

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ১২:২০ অপরাহ্ণ ,৫ ডিসেম্বর, ২০১৪ | আপডেট: ১২:২২ অপরাহ্ণ ,৫ ডিসেম্বর, ২০১৪
পিকচার

স্টাফ রিপোর্টার : রাজবাড়ী শহরের বড়পুলস্থ বসুন্ধারা আবাসিক হোটেল থেকে গত ৩রা ডিসেম্বর রাত সোয়া ২টার দিকে নারী পাচারকারী দলের দুই সদস্যকে গ্রেফতার ও এক কিশোরীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ । গ্রেফতারকৃতরা ওই কিশোরীকে গাজীপুরের তন্দ্রা এলাকা থেকে বাসা বাড়ীতে কাজের প্রলোভন দেখিয়ে দৌলতদিয়া পতিতালয়ে বিক্রির উদ্দেশ্যে রাজবাড়ীতে নিয়ে এসেছিল বলে জানা গেছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলো ঃ ময়মনসিংহ জেলার মুক্তাগাছা থানার চারপাড়া গ্রামের মৃত রজব আলীর ছেলে রফিকুল ইসলাম ওরফে রফিক(৩০) ও রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার আড়াবাড়ী গ্রামের মৃত দানেজ শেখের ছেলে বজলুর শেখ(২৫)। উদ্ধার হওয়া কিশোরী(১৪)। সে টাঙ্গাইল জেলা সদরের শালিনা গ্রামের বাসিন্দা।

পুলিশ কর্তৃক উদ্ধারের পর ওই কিশোরী জানায়, সে এবার জেএসসি পরীক্ষা দিয়েছে। ৬মাস ধরে আপন চাচাতো ভাই নুরে আলম (১৮)-এর সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। নুরে আলম তন্দ্রায় একটি ফ্যাক্টারীতে কাজ করতো। সে কারনে গত ৩ ডিসেম্বর সকালে নুরে আলম তাকে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে গাজীপুরের তন্দ্রায় নিয়ে আসে। তন্দ্রায় আসার পর নুরে আলম তাকে একটি ফ্লাক্সি লোডের দোকানে বসিয়ে রেখে পালিয়ে যায়। এরপর সে নুরে আলমকে পাওয়ার জন্য চান্দিনা এলাকায় চাকুরী করার সিদ্ধান্ত নেয় এবং সে কাজের কোন সন্ধান আছে নাকি বলে ওই দোকান মালিককে জানায়। এ সময় ওই দোকানের মধ্যে রফিক বসা ছিল। ওই কিশোরীর কথা শু