,

সর্বশেষ :
দৌলতদিয়ায় নুরু মন্ডলের পক্ষে নৌকায় ভোট চাইলেন শোভন-রাব্বানী উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে নুরুল ইসলাম মন্ডলের বিকল্প নেই : ছাত্রলীগ নেতা রুবেল রাজবাড়ীর সামাজিক সংগঠন ‘মানবতার জয়’-এর নবগঠিত কমিটির পরিচিতি সভা পদ্মা সেতুতে মাথা লাগার গুজব ছড়ানোয় রাজবাড়ীতে স্কুলছাত্র আটক অসুস্থ আ’লীগ নেতা সামশুল আলমের পাশে দাঁড়ালেন কাজী ইরাদত আলী রাজবাড়ীতে ভুয়া চিকিৎসক আটক, ২০ হাজার টাকা জরিমানা রাজবাড়ীতে আ’লীগ নেতার দুঃসময়ে পাশে দাড়াচ্ছেন না দলীয় নেতৃবৃন্দ! রাজবাড়ীর নবাগত জেলা প্রশাসককে গ্রাম পুলিশ বাহিনীর ফুলেল শুভেচ্ছা কৃষ্ণের ছদ্মবেশ নিয়েও পুলিশের হাতে ধরা পড়লো পলাতক আসামি লাল্টু গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে রাজবাড়ীতে বিএনপির বিক্ষোভ

নিখোঁজের ৫দিন পর পুকুর থেকে সোহাগ ঢালীর লাশ উদ্ধার

News

স্টাফ রিপোর্টার : নিখোঁজের ৫দিন পর রাজবাড়ী শহরের বিশিষ্ট কাপড় ব্যবসায়ী মেসার্স ঢালী গার্মেন্টসের মালিক মোঃ ইউনুছ ঢালীর একমাত্র ছেলে সোহাগ ঢালী(২৪)এর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ শুক্রবার বিকেলে মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলার বেজগাও গ্রামের একটি পুকুর থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

নিহতের পরিবারের সদস্যরা জানায়, সোহাগ ঢালী গত ২৯ডিসেম্বর দোকানের মালামাল কেনার জন্য রাজবাড়ী শহরের নিজ বাড়ি থেকে ঢাকার উদ্দ্যেশ্যে রওনা হন। ঢাকায় পৌছে সে তার মোবাইল ফোন (০১৭১৫-২৮৬৮৭৫) দিয়ে তার পিতা ইউনুছ ঢালীর সাথে কথা বলে। এমনকি রাত ৮টার দিকেও সে আবার ফোন করে কথা বলে। এর কিছুক্ষন পরেই তার মোবাইলটি বন্ধ পাওয়া যায়। এরপর থেকেই সে নিখোঁজ ছিল। আত্নীয়-স্বজনসহ সম্ভাব্য স্থানে খুজেঁও তার কোন সন্ধান পাওয়া না গেলে পরদিন ৩০ ডিসেম্বর রাজবাড়ী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করা হয়।

আজ শুক্রবার বিকেল পৌনে ৪টার দিকে মুন্সিগঞ্জ জেলার শ্রীনগর উপজেলার বেজগাও এলাকায় একটি পুকুরে পা বাঁধা অবস্থায় সোহাগের লাশ ভাসতে দেখে স্থানীয় লোকজন পুলিশকে খবর দেয়। শ্রীনগর থানার এস.আই মোঃ কামাল হোসেন জানান, সোহাগের মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মুন্সীগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

সোহাগ ঢালীর পরিবারের দাবী, অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা পরিকল্পিতভাবে মোবাইলে ডেকে নিয়ে সোহাগকে হত্যা করে লাশ পুকুরে ফেলে রাখে। তবে কি কারণে তাকে হত্যা করা হয়েছে তা এখনো নিশ্চিতভাবে জানা যায়নি।

সোহাগের বন্ধুরা জানায়, গত ২৯ ডিসেম্বর সকালে অজ্ঞাত ব্যক্তির ফোন পেয়ে সে মুন্সীগঞ্জ জেলার শ্রীনগর উপজেলার রাঢ়িখাল ইউনিয়নের দামলা গ্রামে তার পৈতিক বাড়ীর উদ্দেশ্যে রওনা হয়। তবে সে বাড়ীতে ঢাকা যাওয়ার কথা বলে। মুন্সীগঞ্জ যাওয়ার সময় ওই দিন বিকেল ৫টার দিকে সে মাওয়া ফেরী ঘাটে তার চাচাতো ভাই নাঈমের সাথে চা খেয়ে সেখান থেকে বিদায় নিয়ে ঢাকা যাবে বলে চলে আসে। এরপর থেকেই সোহাগের আর কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি।

এদিকে সোহাগের মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনা রাজবাড়ীতে ছড়িয়ে পড়লে শোকের ছায়া নেমে আসে ব্যবসায়ী মহলে। শোকের মাতম শুরু হয় নিহতের বাড়ীতে। ঘটনাটি নিশ্চিত হওয়ার জন্য সাধারণ মানুষ রাজবাড়ী শহরের বিনোদপুর গ্রামে সোহাগের বাড়ীতে ভিড় করতে থাকে। এ সময় পরিবারের সদস্যদের আহাজারী দেখে অনেকেই কান্নায় ভেঙে পড়ে।

নিহত সোহাগ ঢালী ঢাকায় একটি বেসরকারী ইনর্ভাসিটিতে বিবিএ’তে অধ্যায়নরত ছিল। সে রাজবাড়ী বাজারে তার পিতা আলহাজ্ব মোঃ ইউনুছ ঢালীর ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান ঢালী ওষুধ ফার্মেসীতে ব্যবসা দেখাশুনা করতো। এছাড়াও তাদের কাপড় বাজারে মেসার্স ঢালী ষ্টোর নামে পাইকারী ও খুচরা কাপড়ের দোকান রয়েছে।

 

 

 আপডেট : শুক্রবার জানুয়ারী ২,২০১৫/ ১০:০৬ পিএম/ তামান্না

 

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর