কাজী নাফিসের দ্বিতীয় অস্কার প্রাপ্তিতে রাজবাড়ী ডিবেট এসোসিয়েশনের আনন্দ শোভাযাত্রা

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ১:৫৯ অপরাহ্ণ ,৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৫ | আপডেট: ১:৫৯ অপরাহ্ণ ,৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৫
পিকচার

স্টাফ রিপোর্টার : রাজবাড়ীর কৃতি সন্তান চীন প্রবাসী সফটওয়্যার প্রকৌশলী কাজী নাফিস বিন জাফরের দ্বিতীয় অস্কার প্রাপ্তিতে রবিবার (৮ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে আনন্দ শোভাযাত্রা করেছে রাজবাড়ী ডিবেট এসোসিয়েশন।

দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে রাজবাড়ী প্রেসক্লাবের সামনে থেকে আনন্দ শোভাযাত্রাটি বের হয়ে শহরের শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি চত্তর প্রদক্ষিন করে পুনরায় প্রেসক্লাবের সামনে গিয়ে এক সংক্ষিপ্ত আনন্দ সমাবেশে মিলিত হয়।
আনন্দ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন রাজবাড়ী সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাড:এম.এ খালেক,রাজবাড়ী ডিবেট এসোসিয়েশনের সভাপতি মেজবাহ-উল-করিম রিন্টু,রাজবাড়ী প্রেসক্লাবের সভাপতি খাঁন মো.জহুরুল হক ও প্রফেসর রন্টু চৌধুরী। কাজী নাফিস বিন জাফরের পরিবারের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন তার চাচা কাজী আবু মাসুদ,কাজী মাহাতাব উদ্দিন তৌহিদ,কাজী আবু মাজেদ বিনু প্রমুখ।

নাফিস বিন জাফর ২০০৯ সালে মুক্তি পাওয়া হলিউডি ছবি ‘২০১২’ তে প্রথম ড্রপ ড্রেসট্রাকশন টুলকিট ব্যবহারের জন্য অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ড অব সায়েন্স -২০১৪ পুরস্কার পেয়েছেন। শনিবার (৭ ফেব্রুয়ারী) অ্যাকাডেমি অব মোশন পিকচার আর্টস অ্যান্ড সায়েন্সেস’র পক্ষ থেকে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার বেভারলি হিলসে নাফিসের হাতে এ পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়।

এর আগে তিনি ২০০৭ সালে ‘পাইরেটস অব দ্য ক্যারিবিয়ান: অ্যাট ওয়ার্ল্ডস এন্ড’ মুভিতে অ্যানিমেশন করার জন্য বিশ্ব চলচ্চিত্রের সর্বোচ্চ সম্মান অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ড পেয়েছিলেন।

নাফিস ১৯৭৮ সালের ৮ অক্টোবর ঢাকায় জন্মগ্রহণ করেন। তার দাদা বাড়ী রাজবাড়ী জেলা শহরের কাজীকান্দা গ্রামে এবং নানাবাড়ী বিক্রমপুরের টঙ্গিবাড়ী থানার রামপালে। বাবা মায়ের একমাত্র সন্তান তিনি। বাবা জাফর বিন বাশার বর্তমানে নিউইয়র্কে একটি অ্যাকাউন্টিং ফার্মে কর্মরত। আর মা নাফিসা জাফর গৃহিনী। বর্তমানে নাফিস চাকরিসূত্রে চীনের সাংহাইতে ওরিয়েন্টাল ড্রিম ওয়াকর্সে অ্যানিমেশনের প্রধান প্রকৌশলী হিসেবে কাজ করছেন।IMG_0747

বাবার এমবিএ পড়ার সুবাদে ১১ বছর বয়সে ১৯৮৯ সালে স্বপরিবারে যুক্তরাষ্ট্রের সাউথ ক্যারোলিনার চার্লসটনে চলে যান তিনি। সেখানে কলেজ অব চার্লসটন থেকে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রী নেন।

এদিকে দ্বিতীয়বারের মতো অস্কার অ্যাওয়ার্ড পাওয়ায় নাফিসের পৈতৃক বাড়ী রাজবাড়ী শহরের কাজীকান্দা গ্রামের কাজী পরিবারের সদস্যদের মধ্যে বইছে আনন্দের বন্যা।

নাফিসের চাচাতো ভাই কাজী ওহিদুল আলম জিল্লু জানান, বাংলাদেশী হিসেবে নাফিসের অস্কার পাওয়াটা দেশের জন্য অনেক সম্মানের ব্যাপার। আর রাজবাড়ীবাসীর জন্য সবচেয়ে বেশি আনন্দের ব্যাপার নাফিস রাজবাড়ী শহরের ঐতিহ্যবাহী কাজী পরিবারের সন্তান। তিনি আরো জানান, ২০০৮ সালে নাফিস প্রথমবার অস্কার পাওয়ার আগে রাজবাড়ীর পৈতৃক বাড়ীতে এসেছিলেন। ওই সময় সঙ্গে ছিলেন তার মা রুনা জাফর। দেড় বছর আগে তার বাবা কাজী জাফর বিন বাশার এ বাড়িতে এসেছিলেন।

নাফিস জাতীয় স্মৃতিসৌধের স্থপতি ও একুশে পদকপ্রাপ্ত সৈয়দ মইনুল হোসেনের ভাগ্নে এবং বরেণ্য চিত্রশিল্পী মুস্তফা মনোয়ারের নাতি।

 

 

আপডেট : রবিবার ফেব্রুয়ারী ০৮,২০১৫/ ০১:৪৫ পিএম/ আশিক

 


এই নিউজটি 1043 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments