শেখ হাসিনার স্বৈরতন্ত্রের রুপ পাকিস্তান আমলের স্বৈরতন্ত্রকেও হার মানিয়েছে : এ্যাড: কাজী রহমান মানিক

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ১০:৫৭ পূর্বাহ্ণ ,২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৫ | আপডেট: ১০:৫৯ পূর্বাহ্ণ ,২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৫
পিকচার

স্টাফ রিপোর্টার : বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্চাসেবক দলের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এ্যাড: কাজী রহমান মানিক বলেছেন, বর্তমান দেশের প্রেক্ষাপটে বিচার বর্হিভুত খুন, গুম,নির্যাতন ও মিথ্যা মামলা দিয়ে বিরোধীদলকে স্তব্ধ করার জন্য এই অবৈধ অগণতান্ত্রিক স্বৈরাচারী সরকার রাষ্ট্রীয় বাহিনী পুলিশ দিয়ে অত্যাচার-নিপিড়নের পথ বেছে নিয়েছে। মূলত দেশে কোন গণতান্ত্রিক নির্বাচনী সরকার নেই। শেখ হাসিনার স্বৈরতন্ত্রের রুপ পাকিস্তান আমলের স্বৈরতন্ত্রকেও হার মানিয়েছে।

গতকাল শনিবার (২১ ফেব্রুয়ারী) বিকেল ৩টায় তার নিজ বাড়ী রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে “অবিলম্বে নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দাবী” শীর্ষক স্থানীয় সাংবাদিকদের নিয়ে প্রেস কনফারেন্সে এক লিখিত বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, সরকার বিরোধীদলকে নিস্তব্ধ করার পাশাপাশি রাষ্ট্রের চতুর্থ স্তম্ভ গণমাধ্যমকেও কুখ্যাত বলেছেন। মূলত তারা বাকশাল কায়েম করে দেশের মানুষের বাক স্বাধীনতা হরণ করছেন। আমি অত্যন্ত দুঃখ ভরাক্রান্ত মনে স্বরন করছি- পিলখানার বিডিয়ার হত্যাকান্ডের কথা যেখানে আমাদের দেশের সাহসী সন্তানদের নির্লজ্জভাবে হত্যা করা হয়েছে দেশের মেরুদগুকে দূর্বল করার জন্য। শেয়ারবাজার কেলেংকারী করে দেশের সাধারণ মানুষের মেরুদগু ভেঙ্গে দেওয়া হয়েছে। বিসমিল্লাহ, হলমার্ক কেলেংকারী, বেসিক ব্যাংক সহ অনান্য বাংক থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা বিদেশ পাচার করা হয়েছে। মতিঝিল শাপলা চত্বরের হেফাজত ইসলামের শত শত নেতা কর্মীকে রাতের আধারে নির্মমভাবে আটক করে হত্যা করার পর লাশ গুম করেছে এই অবৈধ সরকার। দেশের কারাগারে হাজার হাজার বিরোধী দলের নেতা কর্মীকে মিথ্যা মামলা দিয়ে বিনা বিচারে কারারুদ্ধ করে রাখা হয়েছে। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে খাবার সরবরাহের বাধা দিয়ে দীর্ঘদিন অভুক্ত রাখা হয়েছে। বিভিন্ন অনিয়মের ধারাবাহিকতায় গত বছর ৫ই জানুয়ারীতে নীল নকশা তৈরী করে সাজানো ভোট বিহীন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়, যে নির্বাচনে রাংলাদেশের বৃহত্তর জাতীয়তাবাদী দলকে ইচ্ছাকৃতভাবে অংশ গ্রহণ করতে দেওয়া হয়নি এবং ১৫৪টি আসনের এমপি বিনা প্রতিদন্দিতায় নির্বাচিত হয়েছে। এ দৃষ্টান্ত পৃথিবীর আর কোথাও নেই।

তিনি আরো বলেন, ইলিয়াস আলী, চৌধুরী আলম,দিদার সহ হাজার হাজার বিএনপির নেতাকর্মীকে রাতের আধারে গুম করে রেখেছে এই অবৈধ সরকার। সাংবাদিক সাগর-রুনির নির্মম হত্যাকান্ডের আজও কোন বিচার হয়নি। আজকে এ দেশের গনতন্ত্রকে প্রাতিষ্টানিক রুপ দেওয়ার জন্য এবং বাংলাদেশের ভোটের অধিকার সহ সংবিধানের প্রোনিত মৌলিক অধিকার ফিরে পাওয়ার দাবীতে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া নিজে বিভিন্ন রকম নির্যাতন সহ্য করেও আন্দোলন চুড়ান্ত পর্যায়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য ধাপে ধাপে অগ্রসর হচ্ছেন। যে আন্দেলনে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলসহ বিএনপি ও সকল অঙ্গ সংগঠন তথা ২০দলীয় জোটের নেতা কর্মীরা আন্তরিকভাবে চুড়ান্ত পরিনতিতে নিয়ে যেতে ইচ্ছুক। সেটা হচ্ছে স্বৈরাতন্ত্রের পতন ও নিদলীয় নিরপেক্ষ ও তত্ববধায়ক সরকারের অধিনে নির্বাচন । আমি বালিয়াকান্দি, কালুখালী, পাংশাসহ সমগ্র রাজবাড়ী বাসীকে এ গণতান্ত্রিক আন্দোলনে স্বতস্ফুর্তভাবে অংশ গ্রহন করার অনুরোধ করছি।

এসময় তিনি বন্ধ করে দেওয়া দৈনিক আমারদেশ, ইসলামিক টিভি, দিগন্ত টিভি, একুশে টেলিভিশনের চেয়ারম্যান ও আমার পত্রিকার সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের নি:শ্বার্ত মুক্তি এবং সাগর-রুনির হত্যার বিচার দাবী করেন এবং সমস্ত বাধাকে অতিক্রম করে গণতান্ত্রিক আন্দোলনের সফলতা কামনাসহ বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, রিজভী আহমেদ, সামছুজ্জামান দুদুসহ দলীয় সকল নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবী জানান।

সাংবাদিক সম্মেলনে উপজেলা জামায়াত ইসলামীর সেক্রেটারী খোন্দকার মনির আযম মুন্নু, রাজবাড়ী সদর উপজেলা সেচ্ছাসেবকদলের আহবায়ক তোজাম্মেল হোসেন তোজাম, সাওরাইল ইউনিয়ন বিএনপির যুগ্ন সাধারন সম্পাদক আঃ কুদ্দুস, বালিয়াকান্দি উপজেলা সেচ্ছাসেবকদলের যুগ্ন আহবায়ক বাচ্চু মন্ডল, জামালপুর ইউনিয়ন যুবদলের সাধারন সম্পাদক শওকত হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

 

 

 


এই নিউজটি 872 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments

More News from রাজনীতি