প্রেমের ফাঁদে ফেলে তরুণীকে দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে বিক্রি

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ৭:০৭ অপরাহ্ণ ,২১ মার্চ, ২০১৫ | আপডেট: ৭:০৭ অপরাহ্ণ ,২১ মার্চ, ২০১৫
পিকচার

গোয়ালন্দ প্রতিনিধি : প্রেমের ফাঁদে ফেলে এবং বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে রাজবাড়ী থেকে এক তরুণীকে ফুঁসলিয়ে গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে এনে বিক্রি করেছে প্রেমিকরূপী দালাল তুষার আহমেদ ওরফে মজনু। পরে বিক্রির পাওনা টাকা আনতে গিয়ে শুক্রবার (২০ মার্চ) রাতে স্থানীয় জনতার হাতে ধরা পড়ে ওই প্রেমিকরূপী দালাল মজনু। এ সময় স্থানীয় জনতা তাকে বেদম গণপিটুনি দিয়ে তাকে স্থানীয় থানা পুলিশে সোপর্দ করে। পরে পুলিশ পতিতাপল্লীর বাড়িওয়ালী শাহানাজ বেগমের ঘর থেকে ওই তরুণীকে উদ্ধার করে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, উদ্ধারকৃত ওই তরুণী রাজবাড়ী সদর থানার আটদাপুনিয়া গ্রামের এক দিনমজুরের মেয়ে। তুষার আহমেদ ওরফে মজনু (২৫) একই থানার চন্দনি উত্তরপাড়া গ্রামের আব্দুস ছাত্তার শেখের ছেলে। সে একজন অটোরিকশাচালক। গত দুই মাস আগে অটোরিকশার যাত্রী হওয়ার সুবাদে ওই তরুণীর সঙ্গে মজনুর প্রথম পরিচয় হয়। এরপর থেকে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে তাদের মধ্যে নিয়মিত কথাবার্তা হতে থাকে। এক পর্যায়ে অটোরিকশাচালক মজনুর কাছ থেকে প্রেমের প্রস্তাব পেয়ে মেয়েটি মনেপ্রাণে তাকে ভালোবেসে ফেলে। গত বুধবার বিকেলে বিয়ে করার কথা বলে মজনু তার প্রে