মেধাবী ছাত্র সবুজ বাঁচতে চায়!

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ১২:০৯ অপরাহ্ণ ,২৯ মার্চ, ২০১৫ | আপডেট: ১২:০৯ অপরাহ্ণ ,২৯ মার্চ, ২০১৫
পিকচার

স্টাফ রিপোর্টার : রাজবাড়ী সদর উপজেলার বরাট ভাকলা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর মেধাবী ছাত্র খালিদ মাহমুদ সবুজ (১৭) কে বাঁচাতে এগিয়ে আসুন। সবুজ মরণব্যাধী ক্যান্সারে (সারকোমায়) আক্রান্ত। তবে চিকিৎসক জানিয়েছেন উপযুক্ত চিকিৎসা করাতে পারলে সবুজকে বাঁচানো সম্ভব। কিন্তু এর জন্য প্রয়োজন প্রায় ১০লক্ষ টাকা।

খালিদ মাহমুদ সবুজ রাজবাড়ী সদর উপজেলার বরাট ইউনিয়নের মধুরদিয়া গ্রামের আঃ মজিদ বেপারীর ছেলে। তার বাবা পেশায় একজন রাজমিস্ত্রী ও মা খালেদা বেগম একজন গৃহিনী। সবুজের পিঠে রয়েছে বিশাল আকৃতির টিউমার। যার ওজন ৬/৭ কেজি। যেটি এখন ক্যান্সারে রূপান্তর হয়েছে। এরপরও সুবজ পিঠে মরণব্যাধী ক্যান্সারের জীবানু বহন করে জীবনের সাথে লড়াই করে বইয়ের ব্যাগ কাধে নিয়ে প্রতিদিনই স্কুলে যাচ্ছে। ৫ফটু ৬ ইঞ্চি উচ্চতার লম্বা গঠনের সবুজের ইচ্ছা ছিল সে একজন আদর্শবান পুলিশ অফিসার হবে। সেবা করবে দেশ ও জনগনের। তবে তার সেই স্বপ্ন এখন অধরা। ইতিমধ্যেই সবুজের চিকিৎসা করাতে গিয়ে সর্বশান্ত হয়ে গেছে দরিদ্র পরিবারটি। যে কারনে সবুজের পিতা-মাতা সমাজের সংসদ সদস্য, জেলা প্রশাসনের কর্তাব্যক্তি, জনপ্রতিনিধি, দেশের দানশীল ব্যক্তিবর্গ ও প্রতিষ্ঠানের কাছে সাহায্যের আকুল আবেদন জানিয়েছেন। সবুজ ফিরে পাবে কি স্বাভাবিক জীবনের গতি? পূরন হবে কি বেঁচে থাকার আকুল আর্তনাদ। সকলের আর্থিক সাহায্য সহযোগিতায় দশম শ্রেণীর ছাত্র সবুজ সুস্থ্য হয়ে বেঁচে থাকবে। আসুন আমরা সকলে মিলে সবুজকে বাঁচাতে সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দেই।

সাহায