পাংশায় সোবাহান হত্যা মামলার মূল হোতা গ্রেফতার

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ১০:৫৪ পূর্বাহ্ণ ,২১ মে, ২০১৫ | আপডেট: ১০:৫৪ পূর্বাহ্ণ ,২১ মে, ২০১৫
পিকচার

মোক্তার হোসেন : রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার কশবামাজাইল ইউপির নটাভাঙ্গা গ্রামের সৌদি প্রবাসী আব্দুল মালেক খানের ছেলে সোবাহান খান (১৭) কে গলাকেটে এবং বাম চোখ উৎপাটন করে নির্মমভাবে হত্যাকান্ডের ১৮দিনের মাথায় হত্যার রহস্য উদঘাটনসহ হত্যাকান্ডের মূল হোতা সুমন মন্ডল (১৮)কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার (২০ মে) বিকেলে নটাভাঙ্গা এলাকায় বিশেষ অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় নিহত সোবাহানের ব্যবহৃত বাইসাইকেল এবং হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত নিড়ানি কাচি উদ্ধার করা হয়। ধৃত সুমন একই গ্রামের সদর মন্ডলের ছেলে ও নিহত সোবাহান খানের বন্ধু।

জানাগেছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গতকাল বুধবার বিকেল সোয়া ৫টার দিকে পাংশা থানার ওসি আবু শামা মোঃ ইকবাল হায়াতের নেতৃত্বে এস.আই তরফদার হাবিবুর রহমান, এস.আই খান বেলাল হোসেন, এসআই কামাল হোসেন ভূঁইয়া ও এসআই আবু সায়েমসহ সঙ্গীয় পুলিশদল নটাভাঙ্গা এলাকায় বিশেষ অভিযান চালিয়ে সুজন ওরফে সুমনকে গ্রেফতার করেন এবং তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক ঘটনাস্থলের অদূরে একটি ডোবা থেকে নিহত সোবাহান খানের ব্যবহৃত বাইসাইকেল ও জনৈক টুকুর বাড়ীর নিড়ানি কাচি উদ্ধার করা হয়।

পাংশা থানার ওসি আবু শামা মোঃ ইকবাল হায়াত জানান, নটাভাঙ্গা গ্রামের সৌদি প্রবাসী আব্দুল মালেক খানের ছেলে সোবাহান খানকে পরিকল্পিতভাবে সুমন ও আতিয়ারসহ ৪জন মিলে গত ২রা মে রাতে নটাভাঙ্গা গ্রামের একটি ডিপটিউবলে