,

সর্বশেষ :
রাজবাড়ী-১ আসনের জন্য বিএনপির মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন অ্যাড. খালেক ও আসলাম সুষ্ঠু নির্বাচন হলে রাজবাড়ী-১ আসন পুনরুদ্ধার করতে সক্ষম হবো : অ্যাড. খালেক রাজবাড়ী-১ আসনে বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থী অ্যাড. আসলাম মিয়ার গণসংযোগ রাজবাড়ী-১ আসনের জন্য আ’লীগের মনোনয়ন ফরম নিলেন ইমদাদুল হক বিশ্বাস রাজবাড়ীতে যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন রাজবাড়ীতে এসএসসি পরীক্ষার্থীকে কুপিয়ে জখম রাজবাড়ী-১ আসনের জন্য আ’লীগের মনোনয়ন ফরম নিলেন আশরাফুল ইসলাম রাজবাড়ী-১ আসনের জন্য জাতীয় পার্টির মনোনয়ন ফরম নিলেন মিল্টন প্রত্যেকটি মানুষের ঘরে শান্তি পৌঁছে দেওয়া হবে : রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার রাজবাড়ীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ চরমপন্থি নেতা নিহত

রাজবাড়ীতে চতুর্থ শ্রেণীর স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ

News

স্টাফ রিপোর্টার : রাজবাড়ী সদর উপজেলার খানগঞ্জ ইউনিয়নের খোদ্দর্দাদপুর গ্রামে চতুর্থ শ্রেণীর এক স্কুল ছাত্রীকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ ও মোবাইল ফোনে ধর্ষণের নগ্ন দৃশ্য ধারন করেছে দুই বখাটে। গুরুতর অসুস্থ্য অবস্থায় ওই ছাত্রীকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে রাজবাড়ীর বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ ট্রাইব্যুনালে দুই বখাটের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে।

ওই ছাত্রীর মা জানান, তার স্বামী দক্ষিন আফ্রিকা প্রবাসী। যে কারণে তিনি তার দুই মেয়েকে নিয়ে খানগঞ্জ ইউনিয়নের খোদ্দর্দাদপুর গ্রামে তার বাবার বাড়ীতে বসবাস করেন। গত ১৪জুন তার বড় মেয়ে চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রী বাড়ীর উত্তর পাশের কলাবাগান দেখতে যায়। এ সময় একই গামের আব্দুল লতিফের ছেলে বখাটে শান্ত (১৮) এবং কামালের ছেলে সপ্তম শ্রেণীর ছাত্র সজীব (১৪) তার মুখ চেপে ধরে জোরপূর্বক তাকে একটি পাট ক্ষেতের মধ্যে তুলে নিয়ে যায়। এ সময় শান্ত তাকে ধর্ষণ করে এবং সজীব ওই ধর্ষণের দৃশ্য মোবাইল ফোনে ধারণ করে। এরপর ওই ছাত্রীকে  বিষয়টি প্রকাশ করলে ভিডিও দৃশ্য ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দেয় দুই বখাটে। ভয়ে ওই ছাত্রী ঘটনাটি কাউকে না জানিয়ে চেপে যায়। তাবে ঘটনার দিনই তার প্রচন্ড জ্বর আসে এবং পেটে ব্যাথা শুরু হয়। এক পর্যায়ে স্থানীয় এক চিকিৎসকের কাছ থেকে ওষুধ এনে তাকে খাওয়ানো হয়। এতেও সে সুস্থ্য না হওয়ায় গত শনিবার বিকেলে তাকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালে চিকিৎসক শিশুটিকে নানা রকম প্রশ্ন করায় সে ভয় ও জড়তা নিয়ে ধর্ষণের ঘটনাটি প্রকাশ করে।

এদিকে ১৪ জুনের ঘটনার পর পরই ওই ছাত্রীর মা থানায় মামলা করতে গেলে থানা কর্তৃপক্ষ মামলাটি না নিলে গত ১৮ জুন তিনি রাজবাড়ীর বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ ট্রাইব্যুনালে উল্লেখিত দুই বখাটেসহ অজ্ঞাত আরো দুই জনকে আসামী করে একটি  মামলা দায়ের করেন। আদালত মামলাটি তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য রাজবাড়ী থানার ওসিকে নির্দেশ প্রদান করেছেন।

 

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর