,

পাংশায় প্রতিপক্ষের হামলায় মহিলাসহ ৬জন হাসপাতালে

News

পাংশা প্রতিনিধি : রাজবাড়ীর পাংশা পৌরসভার সত্যজিৎপুর গ্রামে প্রতিপক্ষের হামলায় একই গ্রুপের মহিলাসহ ৬জন গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

সোমবার (২৯ জুন) দিবাগত রাতে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন, মৃত জুমারত আলী মোল্লার ছেলে মেছের আলী ও রাজ্জাক আলী, কেছমত মোল্লার ছেলে জাহাঙ্গীর হোসেন ও আলমগীর হোসেন, আলমগীর হোসেনের স্ত্রী ইয়াসমীন ও আছমত মোল্লার মেয়ে সেলিনা।

জানাগেছে, পূর্ব দ্বন্দ্বের জের ধরে সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে সত্যজিৎপুর গ্রামের কেছমত মোল্লার বাড়ীর সামনে গিয়ে ওই পরিবারের লোকজনকে উদ্দেশ্য করে প্রতিবেশী প্রতিপক্ষের লোকজন অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে। নিষেধ করলে প্রতিপক্ষের হাসেম মোল্লা, নাসির মোল্লা, রাসেল মোল্লাসহ ৯/১০ জনের একটি দল জোটবদ্ধ হয়ে দেশীয় ধারালো অস্ত্র ও লাঠিসোটা নিয়ে হামলা চালায়। হামলায় মেছের আলী, জাহাঙ্গীর হোসেন, আলমগীর হোসেন, ইয়াসমীন ও সেলিনা গুরুতর রক্তাক্ত জখম হয়। আহতদের পাংশা হাসপাতালে ভর্তি করে হাসপাতালের সামনে দোকানে ওষুধ কিনতে গেলে উল্লেখিত হামলাকারীদের কয়েকজন সহযোগী সেখানে রাজ্জাকের উপর হামলা চালায়। হামলায় রাজ্জাক রক্তাক্ত জখম হয়। পরে তাকেও পাংশা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এদিকে, মঙ্গলবার সকালে পাংশা পৌরসভার মেয়র মো. ওয়াজেদ আলী মাস্টার ও পৌরসভার সাবেক কমিশনার সিরাজুল ইসলাম খান পাংশা হাসপাতালে আহতদের দেখতে যান। তারা ঘটনার তীব্র নিন্দা জানান।

 

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর