,

পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে কুক্ষ্যাত ডাকাত সোবাহান নিহত : এলাকায় মিষ্টি বিতরণ

News

স্টাফ রিপোর্টার : রাজবাড়ীর পাংশা থানা পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে কুক্ষ্যাত ডাকাত সোবাহান খাঁ (৪৯) নিহত হয়েছে। এসময় থানার অফিসার ইনচার্জ আবু শামা মো. ইকবাল হায়াৎসহ মোট ৭ পুলিশ সদস্য আহত হন।

বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) গভীর রাতে পাংশা উপজেলার মাছপাড়া ইউপির বরুরিয়া মাঠের মধ্যে একটি আম বাগানে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সোবাহান খাঁ মাছপাড়া ইউপির লক্ষণদিয়া গ্রামের সুজ্জাত ওরফে সুনাই খাঁর ছেলে।

পাংশা থানার অফিসার ইনচার্জ আবু শামা মো. ইকবাল হায়াৎ জানান, সোবাহান খাঁ একজন কুক্ষ্যাত ডাকাত। পাংশা থানায় তার বিরুদ্ধে হত্যা, ডাকাতি ও অস্ত্র মামলাসহ পৃথক ৬টি মামলা রয়েছে। বৃহস্পতিবার সোবাহানকে গ্রেফতার করে তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী অস্ত্র উদ্ধারের জন্য তাকে গভীর রাতে মাছপাড়া ইউপির বরুরিয়া মাঠের মধ্যে একটি আম বাগানে নিয়ে যাওয়া হয়।এসময় আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা সোবাহান গ্রুপের অন্য সদস্যরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে গুলিবর্ষণ করে। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি করে। এসময় সোবাহান গুলিবিদ্ধ হন। পরে সেবাহানকে উদ্ধার করে রাজবাড়ী হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওসি আরো জানান, ঘটনাস্থল থেকে ১টি বিদেশী রিভলবার, ২টি ওয়ান শুটারগান, ৩ রাউন্ড গুলি ও ৫টি কার্তুজ এবং ঘটনাস্থলের পার্শ্ব থেকে ৬টি কার্তুজের খালি খোসা উদ্ধার করা হয়েছে।

বন্দুকযুদ্ধে পাংশা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবু শামা মো. ইকবাল হায়াৎসহ মোট ৭জন পুলিশ সদস্য আহত হন।

এদিকে, সোবাহান খাঁ নিহত হওয়ার খবরে মাছপাড়া বাজারসহ প্রত্যন্ত এলাকার মানুষের মাঝে স্বস্তিভাব বিরাজ করছে এবং অনেকেই মিষ্টি বিতরণ করেছেন।

 

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর