দৌলতদিয়া যৌনপল্লী থেকে তরুনী উদ্ধার

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ৪:২১ অপরাহ্ণ ,৯ আগস্ট, ২০১৫ | আপডেট: ৪:২১ অপরাহ্ণ ,৯ আগস্ট, ২০১৫
পিকচার

স্টাফ রিপোর্টার : রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া যৌনপল্লী থেকে ১৯ বছর বয়সী এক তরুণীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শনিবার (৮ আগস্ট) বিকেলে তাকে উদ্ধার করা হয়। এসময় ঘটনার সঙ্গে জড়িত দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর বাড়িওয়ালী সাথীকে (৪৫) গ্রেফতার করা হয়। সে পতিতাপল্লীর জামাল হোসেনের স্ত্রী।

গোয়ালন্দঘাট থানা সূত্র জানায়, উদ্ধার হওয়া তরুনীর বাড়ী পিরোজপুর সদর উপজেলায়। সে ঢাকার একটি গার্মেন্টসে কাজ করত। দুই বছর আগে ওই তরুনী অজ্ঞাতনামা এক নারী পাঁচারকারী যুবকের খপ্পরে পড়ে। এ সময় ভাল বেতনে কাজ দেওয়ার কথা বলে ওই যুবক তাকে ফুঁসলিয়ে দৌলতদিয়া পতিতাপল্লীতে নিয়ে আসে। সেখানে তাকে মোটা অঙ্কের টাকায় বিক্রি করে দিয়ে যুবকটি পালিয়ে যায়। এরপর থেকে বাড়িওয়ালী সাথী তাকে দিয়ে জোরপূর্বক দেহ ব্যবসার কাজ চালিয়ে আসছিল। তরুনী কৌশলে বিষয়টি তার পরিবারের কাছে জানালে পরিবারের লোকজন পুলিশের সহায়তায় শনিবার বিকেলে যৌনপল্লী থেকে তাকে উদ্ধার করে। এসময় পল্লীর বাড়িওয়ালী সাথীকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এ ব্যাপারে গোয়ালন্দ ঘাট থানায় আটককৃত যৌনকর্মী সাথীকে আসামী করে মানবপাঁচার আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।


এই নিউজটি 1593 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments