রাজবাড়ীতে বিএনপি’র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ১১:২৮ অপরাহ্ণ ,২ সেপ্টেম্বর, ২০১৫ | আপডেট: ১১:২৯ অপরাহ্ণ ,২ সেপ্টেম্বর, ২০১৫
পিকচার

স্টাফ রিপোর্টার : আওয়ামীলীগের ব্যর্থতার কারনে নতুন রাজনৈতিক শক্তি জাসদের জন্ম হয়। জাসদ পথ ভ্রষ্ট হওয়ায় বিএনপি’র জন্ম হয়। ৩৭বছর আগে জিয়াউর রহমান বিএনপি প্রতিষ্ঠা করেন। এই দলের আদর্শ হচ্ছে সকল ধর্মের মানুষ তাদের মত প্রকাশ করতে পারবে। রাষ্ট্র হবে আমাদের সকলের। সেই জায়গা তৈরী করেছে বিএনপি। ৩৭ বছর আগে বিএনপি আধুনিক গণতন্ত্রের যাত্রা শুরু করে ছিল। আমরা সেই যাত্রায় শরীক হয়েছি।

মঙ্গলবার (১ সেপ্টেম্বর) বিকেলে দলীয় কার্যালয়ে জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি’র ৩৭তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে রাজবাড়ী জেলা বিএনপির সভাপতি আলী নেওয়াজ মাহমুদ খৈয়াম এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, এদেশের বেশীর ভাগ মানুষই এ সরকার চায় না। কারণ এই সরকারকে কেউ ভোট দেয়নি। তেমনি রাজবাড়ীর যারা এমপি তারা নিজেরাও ভোট দেননি। ভোট ছাড়াই এমপি হয়েছেন। ভোট কেন্দ্রে কেউ যায়নি। দেশের বিভিন্ন স্থানে তারা নিজেরা জাল ভোট দিয়ে বাক্স ভরে দেখিয়েছেন ভোট হয়েছে। উপজেলা নির্বাচনেও একই কায়দা করা হয়েছে। সম্প্রতি বার কাউন্সিল নির্বাচনেও তাই করা হয়েছে। এখন শুনতে পারছি আসন্ন পৌরসভা ও ইউনিয়ন নির্বাচনেও তাই করা হবে। জোর করে তারা বাক্স ভরে দেবে।

আলী নেওয়াজ মাহমুদ খৈয়াম আরো বলেন, প্রশাসন ন্যায়ের পক্ষে নাই। শুধু পুলিশ যদি সরে দাঁড়ায় তাহলে আওয়ামীলীগের কোন নেতা ঘর থেকে বের হতে পারবে না। এটা একটা স্বাধীন দেশ। যে গণতন্ত্রের জন্য আমরা রক্ত দিয়েছিলাম। এই দেশে যখনি আপনি কথা বলতে যাচ্ছেন তখনি গুম করা হচ্ছে। আমাদের দলের শত শত নেতাকর্মীকে গুম করা হয়েছে। পুলিশ জানে এ সরকার বৈধ নয়। তারপরও পুলিশ তাদের পক্ষে বন্দুক-লাঠি নিয়ে নেমেছে। ছাত্রলীগ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ও খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়কে অকার্যকর করেছে। তারা সারা বাংলাদেশকে অকার্যকর করে ফেলেছে। কিন্তু ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না। এই অনির্বাচিত সরকার, ভোট চুরির সরকার বেশী দিন ক্ষমতায় থাকতে টিকতে পারবে না।

তিনি আরো বলেন, আমাদের এখন বিপদ চলছে। তাই আমাদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। গ্র“পিং করলে চলবে না। শহীদ জিয়া যে আদর্শ রেখে গেছেন তা আমাদের বাস্তবায়ন করতে হবে। তাহলে বিএনপি আরো শক্তিশালী হবে। বেগবান হবে। জ্ঞান সমৃদ্ধ হবে।

জেলা বিএনপি আয়োজিত আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে জেলা বিএনপির অন্যতম সহ-সভাপতি ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাডঃ এম.এ খালেক, এ্যাডঃ আসাদুজ্জামান লাল, এ্যাডঃ এম.এ গফুর, সাধারণ সম্পাদক হারুন-অর-রশিদ, যুগ্ম-সম্পাদক গাজী আহসান হাবীব, জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি এম.জি মোস্তফা, উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কে.এ সবুর শাহিন, পৌর বিএনপির সভাপতি অধ্যক্ষ মঞ্জুরুল আলম দুলাল ও বাস্তহারা দলের সভাপতি মহব্বত হোসেন খোকন প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

আলোচনা সভায় উপস্থাপনা করেন জেলা বিএনপির দপ্তর সম্পাদক এ মজিদ বিশ্বাস। আলোচনা সভায় বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

 

 


এই নিউজটি 654 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments

More News from রাজনীতি