‘এহসান কলিন্স’ দুরন্ত মোনোবল সমৃদ্ধ একজন মানুষ, | খালেদ পাভেল

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ১২:১৬ পূর্বাহ্ণ ,৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৫ | আপডেট: ১১:১০ অপরাহ্ণ ,৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৫
পিকচার

অনেক দিন ধরেই ভাবছি এই মানুষটাকে নিয়ে কিছু লিখবো, কিভাবে লিখবো কতটুকু লিখতে পারবো তা নিয়েই আজ এতদিন।

আমার সাথে তাঁর প্রথম দেখা পূর্বলন্ডনের আইডিয়াস লাইব্রেরীর পাঠক কক্ষে। হাতে একটি মাইক্রোফোন, একপাশে ভিডিও ক্যামেরা রেকর্ডিং হচ্ছে আর তিনি বাংলাদেশী পাঠকদের ইন্টারভিউ নিচ্ছেন। পরস্পরের সহিত কথা বলে জানতে পারলাম লাইব্রেরীর উপর তিনি ডকুমেন্টরী বানাচ্ছেন। মানুষগুোলোর সাথে কি প্রানবন্তভাবে তিনি কথা বলছেন। এর মধ্যে একজন পাঠক খুব বুকভরা কন্ঠে বলেই ফেললো “ পূর্ব লন্ডনে এত বাঙ্গালী ছেলে মেয়ে পড়াশুনা করেন কিন্তু কাউকে দেখিনি কাজের ফাঁকে, পড়াশুনার পাশাপাশি এতকষ্ট করে মানুষের জন্যে কিছু করা”। আমি শুধুই নীরব দর্শক হয়ে উপভোগ করছি।তিনি লাইব্রেরী নিয়ে কাজ করছিলেন আমাদের দেশের জন্যেই। সেইদিনের সেই কাজের শেষে দীর্ঘ আলাপচারিতা হলো। সমস্ত গল্পের মধ্যেই আমাদের দেশের সাধারন মানুষদেরকে নিয়েই স্বপ্ন তাঁর।

তারপর দেখা হলো লন্ডন কুইনম্যারী বিশ্ববিদ্যালয়ের অডিটোরিয়ামে। ইউরোপের সবচেয়ে বড় কবিতা উৎসবে। কি আবেগঘন কন্ঠে তিনি আবৃত্তি করলেন তাঁ