স্বপ্ন পূরন হলো না পান দোকানী কদমের : বেছে নিতে হলো আত্মহত্যার পথ

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ১১:২৩ অপরাহ্ণ ,১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৫ | আপডেট: ১১:৪০ অপরাহ্ণ ,১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৫
পিকচার

স্টাফ রিপোর্টার : সব পিতাই চান সন্তানেরা বড় হলে সংসারের দায়িত্ব তাদের হাতে বুঝিয়ে দিয়ে অবসরে যাবেন। অন্য সব পিতাদের মতো কদমও ঠিক এমনটিই চেয়েছিলেন। বুক ভরা স্বপ্ন ছিলো ছেলেকে বিদেশে পাঠিয়ে কাজ থেকে অবসর নিবেন তিনি। আর তাই তো শত কষ্ট উপেক্ষা করে ধার-দেনা হয়ে প্রায় দেড় লক্ষ টাকা তুলে দেন প্রতারক আদম ব্যবসায়ী রফিক ও দাউদের হাতে। শেষ পর্যন্ত ছেলেকে বিদেশ পাঠানোর স্বপ্ন পূরন হয় নি কদমের। তবে অবসর নিয়েছেন ঠিকই কিন্তু পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে চিরকালের মতো।

পাওনাদারদের অপমান সহ্য করতে না পেরে গতকাল বৃহস্পতিবার ভোর রাতে নিজ ঘরের আড়ার সাথে গলায় ফাঁসি নিয়ে আত্মহত্যা করেন রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার ছোট ভাকলা ইউনিয়নের দরিদ্র পান দোকানী লিয়াকত হোসেন ওরফে কদম আলী (৫০)।

মৃত কদম আলীর স্ত্রী ছোটভাকলা ইউনিয়নের মহিলা মেম্বার রেহেনা বেগম জানান, তার স্বামী কদম উচ্চ শিক্ষিত হয়েও রাজবাড়ী কোর্ট চত্ত্বরে একটি ছোট্ট পানের দোকান করে সংসার চালাতো। তার স্বপ্ন ছিলো ছেলে আবু বক্কর খান ওরফে সাগরকে (২০) কাতারে পাঠিয়ে নিজে কাজ থেকে অবসর নিয়ে সুখে-শান্তিতে জীবনযাপন করবেন। আর তাই ধার-দেনা হয়ে বালিয়াকান্দি উপজেলার জঙ্গল ইউনিয়নের রফিক ও দাউদ নামের দুই প্রতারক আদম ব্যবসায়ীর কাছে ১লক্ষ ৪৫হাজার টাকা তুলে দেন তিনি। কিন্তু ব্রাক ব্যাংক থেকে ঋন নিতে গিয়ে ভিসা চেক করে জানতে পারেন আদম ব্যবসায়ী রফিক ও দাউদ তাকে যে ভিসা দিয়েছে তা আসল নয়। তখন থেকেই কদম মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়েন। এদিকে পাওনাদারদের চাপ আর অপমান সহ্য করতে না পেরে শেষ পর্যন্ত আত্মহত্যার পথ বেছে নেন কদম। গতকাল বৃহস্পতিবার ভোর রাত সাড়ে ৩টার দিকে নিজ ঘরে আড়ার সাথে গলায় ফাঁসি নিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি।

কদমের স্ত্রী আরো জানান, এর আগেও বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের কাছে ধার-দেনা হয়ে আদম ব্যবসায়ী রফিক ও দাউদকে ২ লক্ষ ৫০হাজার টাকা দিয়ে তারা তাদের ছেলে সাগরকে বিদেশে পাঠিয়েছিলেন। কিন্তু সেখান থেকেও নানান সমস্যার কারণে সাগরকে ফেরৎ আসতে হয়।

এ বিষয়ে গোয়ালন্দ ঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহ্ জালাল জানান, কদম আলীর ব্যাপারে থানায় অপমৃত্যু মামলা দায়ের হয়েছে। অভিযোগ পেলে প্রতারক আদম ব্যবসায়ী দাউদ ও রফিকের বিরুদ্ধে আইনানুযায়ী ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।

 


এই নিউজটি 2500 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments