স্বপ্ন পূরন হলো না পান দোকানী কদমের : বেছে নিতে হলো আত্মহত্যার পথ

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ১১:২৩ অপরাহ্ণ ,১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৫ | আপডেট: ১১:৪০ অপরাহ্ণ ,১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৫
পিকচার

স্টাফ রিপোর্টার : সব পিতাই চান সন্তানেরা বড় হলে সংসারের দায়িত্ব তাদের হাতে বুঝিয়ে দিয়ে অবসরে যাবেন। অন্য সব পিতাদের মতো কদমও ঠিক এমনটিই চেয়েছিলেন। বুক ভরা স্বপ্ন ছিলো ছেলেকে বিদেশে পাঠিয়ে কাজ থেকে অবসর নিবেন তিনি। আর তাই তো শত কষ্ট উপেক্ষা করে ধার-দেনা হয়ে প্রায় দেড় লক্ষ টাকা তুলে দেন প্রতারক আদম ব্যবসায়ী রফিক ও দাউদের হাতে। শেষ পর্যন্ত ছেলেকে বিদেশ পাঠানোর স্বপ্ন পূরন হয় নি কদমের। তবে অবসর নিয়েছেন ঠিকই কিন্তু পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে চিরকালের মতো।

পাওনাদারদের অপমান সহ্য করতে না পেরে গতকাল বৃহস্পতিবার ভোর রাতে নিজ ঘরের আড়ার সাথে গলায় ফাঁসি নিয়ে আত্মহত্যা করেন রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার ছোট ভাকলা ইউনিয়নের দরিদ্র পান দোকানী লিয়াকত হোসেন ওরফে কদম আলী (৫০)।

মৃত কদম আলীর স্ত্রী ছোটভাকলা ইউনিয়নের মহিলা মেম্বার রেহেনা বেগম জানান, তার স্বামী কদম উচ্চ শিক্ষিত হয়েও রাজবাড়ী কোর্ট চত্ত্বরে একটি ছোট্ট পানের দোকান করে সংসার চালাতো। তার স্বপ্ন ছিলো ছেলে আবু বক্কর