কালুখালীতে বেগম খালেদা জিয়ার ৮ম কারা মুক্তি দিবস পালিত

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ১০:৩২ অপরাহ্ণ ,১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৫ | আপডেট: ১০:৩২ অপরাহ্ণ ,১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৫
পিকচার

কালুখালী থেকে, মোখলেছুর রহমান : রাজবাড়ীর কালুখালীতে উপজেলা বিএনপি’র উদ্যোগে দলের চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ৮ম কারা মুক্তি দিবস পালিত হয়েছে।

দিবসটি পালন উপলক্ষে শুক্রবার (১১ সেপ্টেম্বর) বিকেলে উপজেলা বিএনপির কার্যালয়ে আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও উপজেলা বিএনপির আহবায়ক আলহাজ্ব লায়ন এ্যাডঃ আব্দুর রাজ্জাক খানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি এ্যাডঃ লিয়াকত আলী বাবু, উপজেলা বিএনপির সদস্য সচীব মোসলেম উদ্দিন মিয়া, সম্মেলন প্রস্তুতির কমিটির আহবায়ক জিয়াউর রহমান জিরু,শাহজাহান আলী মাষ্টার,আব্দুর রহমান মন্ডল, মোঃ নজরুল ইসলাম, শাহাদৎ হোসেন সাইফুল, আশরাফুজ্জামান খান বাদশা, রাজু আহম্মেদ বকুল মাষ্ঠার, ও ছাত্র নেতা মেহেদী হাসান তোতা প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।

সভাপতির বক্তব্যে এ্যাডঃ আব্দুর রাজ্জাক খান বলেন, সেনা-সমর্থিত সরকার ২০০৭ সালের ৩ সেপ্টেম্বর ভোরে সেনানিবাসের মঈনুল রোডের বাসভবন থেকে  বিনা অপরাধে বেগম খালেদা জিয়াকে গ্রেফতার করে। এরপর এক বছরেরও অধিক সময় কারা ভোগ করেন বেগম খালেদা জিয়া। পরে ২০০৮সালের ১১ ই সেপ্টেম্বর মুক্তি পেয়েছিলেন তিনি ।

ওয়ান-ইলেভেনের মঈন উদ্দিন ও ফখরুদ্দিন সরকারের সমালোচনা করে তিনি বলেন, মঈন উদ্দিন ও ফখরুদ্দিন আওয়ামীলীগের দালালী করে ক্ষমতায় থাকতে চেয়েছিল এবং বিএনপির রাজনীতি ধংস করার পায়তারা করেছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তারা সফল হতে পারেনি। ব্যার্থতার বোঝা নিয়ে দেশ ছেড়ে পালাতে হয়েছে তাদের। এ অবৈধ সরকারও জুলুম-অত্যাচার করে টিকে থাকতে পারবে না। এদেরও একদিন পতন ঘটবে। আর সেদিন দেশ থেকে পালিয়েও রেহাই পাবে না এরা।

সর্বশেষে তিনি, দলের এ ক্লান্তি লগ্নে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও দেশনায়ক তারেক রহমানের হাতকে শক্তিশালী করতে এবং আগামী দিনের আন্দোলন সংগ্রাম জোরদার করতে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার জন্য উপস্থিত নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান জানান।

আলোচনা সভা শেষে মিলাদ ও দেয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

 


এই নিউজটি 590 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments