মেধাবী কলেজ ছাত্রী মুন্নির রহস্যজনক আত্মহত্যা : ১২দিনেও উদঘাটন হয়নি মূল রহস্য

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ১:০৮ অপরাহ্ণ ,১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৫ | আপডেট: ১:০৮ অপরাহ্ণ ,১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৫
পিকচার

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজবাড়ী সরকারী কলেজের অনার্স ২য় বর্ষের মেধাবী ছাত্রী মুন্নি খাতুনের রহস্যজনক আত্মহত্যা গোটা পরিবারকে স্তব্ধ করে দিয়েছে। তার মৃত্যুতে বাকরুদ্ধ হয়ে গেছে পরিবারটি। মুন্নি খাতুনের পরিবারের অভিযোগ কোন ব্যক্তির প্ররোচনায় মুন্নি আত্মহত্যা করতে বাধ্য হয়েছে। কিন্তু এ আত্মহত্যার রহস্য উদঘাটনে নীরব ভূমিকায় রয়েছে পুলিশ। এদিকে মুন্নির মৃত্যুর পর এলাকা থেকে গাঢাকা দিয়েছে তার কথিত প্রেমিক আলম। এছাড়াও মুন্নির মৃত্যুর দিন তার পাঠ্য বইয়ের প্রথম পাতায় একটি চিরকুট লেখা ছিল। কিন্তু সেই পাঠ্য বইয়ের নিচের অংশ কে বা কারা ছিড়ে নিয়ে গেলো? কি লেখা ছিল তাতে? সেটা জানারও চেষ্টা করেনি পুলিশ। ফলে বিষয়টি নিয়ে আরো ধুম্রজাল সৃষ্টি হয়েছে।

গত ১লা সেপ্টেম্বর সকালে নিজ বাড়ীতে মুন্নি খাতুন (২০) এর গলায় ফাঁস দেয়া লাশ উদ্ধার করে পরিবারের লোকজন। মুন্নি রাজবাড়ী সদর উপজেলার মিজানপুর ইউনিয়নের বড়চর বেনীনগর গ্রামের অটো চালক মমিন মন্ডলের মেয়ে।

সরেজমিন অনুসন্ধান করে জানাযায়, এসএসসিতে জিপিএ-৫ পাওয়া মেধাবী ছাত্রী মুন্নির স্বপ্ন ছিল সে উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত হবে। তাই বুকভরা স্বপ্ন