,

দৌলতদিয়া পতিতালয় থেকে গার্মেন্টস কর্মী উদ্ধার

News

রাজবাড়ী ডেস্ক : রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া পতিতালয়ে অভিযান চালিয়ে এক গার্মেন্টস কর্মী (২৫) কে উদ্ধার করেছে পুলিশ। এসময় শিল্পী (৩৫) নামের এক বাড়িওয়ালীকে গ্রেফতার করা হয়। সে চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুহুদা উপজেলার মদনা গ্রামের মৃত আক্কাচ আলীর মেয়ে।

পুলিশ সূত্রে  জানা যায়, নারায়নগঞ্জ বন্দর থানার ঘারমোড়া গ্রামের ওই তরুনী ঢাকা ফকিরাপুল এলাকার বাবু টাওয়ার গার্মেন্টসে কাজ করত। কাজে আসা-যাওয়ার সময় আমজেদ নামের এক নারী পাচারকারী তার সাথে সখ্যতা গড়ে তোলে। চলতি বছর ৫ জুলাই আমজেদ তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ফুঁসলিয়ে দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে এনে প্রভাবশালী বাড়িওয়ালা দবির আলী ও শিল্পী বাড়িওয়ালীর কাছে ৭৫ হাজার টাকায় বিক্রি করে দিয়ে পালিয়ে যায়। এরপর থেকে দবির আলী ও শিল্পী তাকে দিয়ে জোরপূর্বক দেহ ব্যবসার কাজ চালিয়ে আসছিল। এ অবস্থায় গত ৫ অক্টোবর রাতে তার কাছে আসা এক খরিদ্দারের কাছে তাকে উদ্ধারের আকুতি জানালে পরদিন মঙ্গলবার বিষয়টি ওই খরিদ্দার থানা পুলিশকে অবহিত করে। পরে পুলিশ দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে অভিযান চালিয়ে তাকে উদ্ধার ও শিল্লী বাড়িওয়ালীকে গ্রেফতার করে।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ এসএম শাহজালাল জানান, এ ঘটনায় উদ্ধার হওয়া গার্মেন্টস কর্মী নিজে বাদি হয়ে গ্রেফতার হওয়া শিল্পী বাড়িওয়ালী, দবির বাড়িওয়ালা ও নারী পাচার চক্রের সদস্য আমজেদের বিরুদ্ধে মানবপাচার আইনে মামলা দায়ের করেছে।

 

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর