রাজবাড়ীতে যৌতুক লোভী স্বামীর নির্যাতনের শিকার গৃহবধূ রাফেজার অসহায় জীবনযাপন!

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ৮:০৩ অপরাহ্ণ ,১৭ অক্টোবর, ২০১৫ | আপডেট: ৮:০৩ অপরাহ্ণ ,১৭ অক্টোবর, ২০১৫
পিকচার

স্টাফ রিপোর্টার : লম্পট স্বামী ও লোভী শ্বশুরের দাবীকৃত যৌতুক মিটাতে না পারায় অমানুষিক নির্যাতনের শিকার হয়ে দীর্ঘ ১বছর ধরে দরিদ্র পিতার বাড়ীতে অসহায় জীবনযাপন করছে রাজবাড়ী সদর উপজেলার উদয়পুর গ্রামের রাফেজা খাতুন (২৫) । এ ঘটনায় যৌতুকলোভী স্বামী লুৎফর রহমান ও শ্বশুর জগো মন্ডলের বিরুদ্ধে রাজবাড়ীর বিজ্ঞ ১নং আমলী আদালতে মামলা করেও ন্যায় বিচার পাচ্ছে না সে।

রাফেজা খাতুন জানান, বিগত ২০০৯ সালের ১৩ই মার্চ ফরিদপুর সদর উপজেলার শিবরামপুর গ্রামের মোঃ জগো মন্ডলের ছেলে মোঃ লুৎফর রহমানের সাথে তার বিয়ে হয়। রাফেজার পিতা মোঃ মোচন শেখ পেশায় একজন দরিদ্র কৃষক হওয়া সত্তে¦ও বিয়ের সময় মেয়ের সুখের কথা চিন্তা করে ধার-দেনা করে লুৎফর রহমানকে উপহার হিসেবে নগদ অর্থ, স্বর্ণালংকার ও কাঠের ফার্নিচার প্রদান করেন। কিন্তু লম্পট লুৎফর সেই টাকা পয়সা দিয়ে বাজে মহিলাদের সাথে অনৈতিক সম্পর্ক করতে থাকে। রাফেজা লুৎফরকে এ কাজে নিষেধ করলে রাফেজার উপর চালানো হতো অমানুষিক নির্যাতন। গত ১বছর আগে লুৎফর তার পিতা জগো মন্ডলের নির্দেশে রাফেজাকে তার পিতার বাড়ী থেকে ১ লক্ষ টাকা যৌতুক এনে দিতে বলে। এতে রাফেজা অস্বীকার করলে লুৎফর ও তার পিতা জগো মন্ডল রাফেজার উপর অমানুষিক নির্যাতন চালিয়ে তাকে বাড়ী থেকে তারিয়ে দেয়। রাফেজা নিরুপায় হয়ে রাজবাড়ী সদর উপজেলার উদয়পুর গ্রামে তার দরিদ্র পিতা মোচন শেখের বাড়ীতে আশ্রয় নেয়। এরপর চলতি বছরের ১লা মার্চ বিকেল ৩টার দিকে লুৎফর ও তার পিতা জগো মন্ডল রাফেজার পিতার বাড়ীতে আসলে তাদেরকে আদর আপ্যায়ন করা হয়। এক পর্যায়ে রাফেজার পিতা মোচন শেখ লুৎফর ও তার পিতার কাছে রাফেজাকে ঘড়ে ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য অনুরোধ করলে তারা ১লক্ষ টাকা যৌতুক হিসেবে পেলে রাফেজাকে ঘড়ে ফিরিয়ে নিবে বলে প্রকাশ করে। না হলে অন্যত্র বিয়ে করে বেশী যৌতুক নিবে বলে লুৎফর ও তার পিতা চলে যায়। গত ১ বছর ধরে রাফেজা তার দরিদ্র পিতা মোচন শেখের বাড়ীতেই অসহায় জীবনযাপন করছে।

এ ঘটনায় অসহায় রাফেজা ন্যায় বিচারের আশায় গত ৩রা মার্চ যৌতুকলোভী স্বামী লুৎফর রহমান ও শ্বশুর জগো মন্ডলের বিরুদ্ধে রাজবাড়ীর বিজ্ঞ ১নং আমলী আদালতে যৌতুক নিরোধ আইনের ৪ধারায় একটি মামলা দায়ের করে। কিন্তু মামলা করার ৬মাস পেরিয়ে গেলেও বিচার পাচ্ছে না সে। এ বিষয়ে অসহায় রাফেজা প্রশাসনের আশুহস্তক্ষেপ কামনা করেছে।

 

 

রাজবাড়ী নিউজ ২৪.কম/ আশিক

 

 


এই নিউজটি 608 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments