,

রাজবাড়ীতে বন্দুকযুদ্ধে শীর্ষ সন্ত্রাসী পিচ্চি শাহিন নিহত

News

স্টাফ রিপোর্টার : রাজবাড়ীতে ডিবি পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে তালিকাভূক্ত শীর্ষ সন্ত্রাসী তৌহিদুল হক শাহিন ওরফে পিচ্চি শাহিন (৩০) নিহত হয়েছেন। এসময় জেলা ডিবি পুলিশের এসআই নিজাম উদ্দিন, এসআই কামাল হোসেন ভূঁইয়া, এএসআই হিরণ কুমার বিশ্বাস ও কনস্টেবল শফিকুল ইসলাম আহত হন।

বুধবার (৪ নভেম্বর) দিবাগত রাত পৌনে ৩টার দিকে সদর উপজেলার আলীপুর গ্রামের জনৈক জাকির হোসেন ভূঁইয়ার কলাবাগানের মধ্যে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

নিহত শাহিন রাজবাড়ী সদর উপজেলার খানখানাপুর ইউনিয়নের জয়নাল আবেদীনের ছেলে।

জেলা ডিবি পুলিশ সূত্র জানায়, গত বুধবার সন্ধ্যায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সদর উপজেলার বসন্তপুর এলাকা থেকে শীর্ষ সন্ত্রাসী পিচ্চি শাহিনকে গ্রেফতার করা হয়। এরপর তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী অস্ত্র উদ্ধারের জন্য রাত পৌনে ৩টার দিকে তাকে সদর উপজেলার আলীপুর গ্রামের জনৈক জাকির হোসেন ভূঁইয়ার কলাবাগানে নিয়ে যাওয়া হয় । এসময় আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা শাহিন গ্রুপের সদস্যরা ডিবি পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ শুরু করে। আত্মরক্ষার্থে ডিবি সদস্যরাও পাল্টা গুলি চালায়। উভয় পক্ষের এ বন্দকযুদ্ধ চলাকালে পিচ্চি শাহিন দৌড়ে পালাতে গেলে গুলিবিদ্ধ হন। এসময় বুকে দুটি গুলি লেগে গুরুতর আহত শাহিনকে উদ্ধার করে রাজবাড়ী হাসপাতালে নেওয়া হলে হাসপাতালের জরুরী বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ডিবি পুলিশ সূত্র আরো জানায়, এ বন্দুকযুদ্ধে জেলা ডিবি পুলিশের এসআই নিজাম উদ্দিন, এসআই কামাল হোসেন ভূঁইয়া, এএসআই হিরণ কুমার বিশ্বাস, কনস্টেবল শফিকুল ইসলামও আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে একটি বিদেশী পিস্তল, একটি রিভলবার, একটি ওয়ান শূটারগান ও সাত রাউন্ড গুলি উদ্ধার হয়েছে।

রাজবাড়ী ডিবি’র এসআই কামাল হোসেন ভূঁইয়া জানান, নিহত তৌহিদুল হক শাহিন ১৬বছর বয়সে প্রথম চাঞ্চল্যকর মার্ডার সুলতানপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আঞ্জুকে গোয়ালন্দ মোড়ে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যা করে পিচ্চি শাহিন হিসেবে আলোচনায় আসে । এরপর থেকে সে বিভিন্ন জেলায় ভারাটে খুনী হিসাবে কাজ করে আসছিল । এছাড়াও সে রাজবাড়ী জেলার বিভিন্ এলাকায় ব্যাপক চাঁদাবাজী করতো। পিচ্চি শাহিনের বিরুদ্ধে ৮টি হত্যা মামলা, ৪টি অস্ত্র মামলা ও ১টি পুলিশের উপর হামলার ঘটনায় মামলাসহ একাধিক মামলা রয়েছে।

এদিকে, শীর্ষ সন্ত্রাসী পিচ্চি শাহিন নিহত হওয়ার খবরে এলাকায় স্বস্তিভাব বিরাজ করছে।

 

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর