রাজবাড়ীতে গৃহকর্মীকে ধর্ষণের পর গর্ভবতী, অতঃপর সন্তান প্রসব

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ৯:০১ অপরাহ্ণ ,১৩ জানুয়ারি, ২০১৬ | আপডেট: ৯:৩৮ অপরাহ্ণ ,১৩ জানুয়ারি, ২০১৬
পিকচার

স্টাফ রিপোর্টার : রাজবাড়ী জেলা সদরের বরাট ইউনিয়নের এলাইল গ্রামে কিশোরী গৃহকর্মীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে ৬০বছর বয়সী লম্পট গৃহকর্তা তৈমুর রহমান তোতা । এতে ওই গৃহকর্মী গর্ভবতী হয়ে অবৈধ সন্তান প্রসব করে। কিন্তু সন্তান প্রসবের পর এ ঘটনা ধামাচাপা দিতে মরিয়া হয়ে উঠেছে লম্পট তোতা।

এ অবস্থায় সোমবার (১১ জানুয়ারি) ওই গৃহকর্মী বাদী হয়ে তৈমুর রহমান তোতার বিরুদ্ধে রাজবাড়ীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ ট্রাইবুনাল আদালতে একটি মামলা দায়ের করেছে ।

গৃহকর্মীর মা জানান, তার মেয়ে (১৬) রাজবাড়ী জেলা সদরের বরাট ইউনিয়নের এলাইল গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত সরকারী কর্মচারী খন্দকার তৈমুর রহমান তোতা (৬০) এর বাড়ীতে গৃহপরিচারিকার কাজ করতো। তাদের বাড়ীও পার্শ্ববতী বিষ্ণপুর গ্রামে। তৈমুর রহমানের এক ছেলে বিদেশে ও অপর ছেলে ঢাকায় বসবাস করে। এ কারনে বাড়ীতে সে ছাড়া আর কেউ থাকতো না। বাড়ীতে কেউ না থাকার সুযোগে তৈমুর রহমান তোতা বিগত ২০১৫সালের ১৫মার্চ বিকেলে শোবার ঘরে তার মেয়েকে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে এবং বিষয়টি কাউকে জানাতে নিষেধ করে। এ ঘটনার পর ওই গৃহকর্মী তার ভয়ে বিষয়টি কাউকে না জানিয়ে চুপ করে থাকে।

এদিকে ধর্ষণের ফলে সে গর্ভবতী হয়ে পড়লে তোতা তার গর্ভের সন্তানকে নষ্ট করে ফেলার জন্য চাপ সৃষ্টি করে। এতে সে রাজী না হলে গৃহকর্তা তোতা তাকে ওই বাড়ীতে আবদ্ধ করে রাখে। এক পর্যায়ে ওই গৃহকর্মীর গর্ভের সন্তান পরিপূর্ণভাবে পুষ্ট