,

সর্বশেষ :
শহিদদের শ্রদ্ধা জানাতে কলাগাছের স্মৃতির মিনার রাজবাড়ীতে বই মেলা শুরু রাজবাড়ীতে মেয়েকে ধর্ষণের দায়ে বাবার যাবজ্জীবন উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে ট্রাষ্টি বোর্ডকে আরও ৮ লাখ টাকা দিলেন ডা. আবুল হোসেন বালিয়াকান্দিতে শিশু ছাত্রীদের ধর্ষণ ও যৌন নিপীড়নের অভিযোগে শিক্ষক গ্রেফতার রাজবাড়ীতে ১৫ কেজি গাঁজাসহ স্বামী-স্ত্রী আটক রাজবাড়ীতে কলেজছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে রাজমিস্ত্রী আটক এক যুগ ধরে চিকিৎসাসেবার নামে প্রতারণা করে আসছেন রাজবাড়ীর পচা কর্মকার! সেদিন রোদ্দুর হয়নি বলেই আজ বৃষ্টি হলো… এহসান কলিন্স শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জনসভায় ফয়সাল সরদারের নেতৃত্বে লক্ষীকোলের ৫ শতাধিক নারী-পুরুষ

কি তার পরিচয় ?

News

শিহাবুর রহমান॥ কে এই কিশোরী ? কোথায় তার বাড়ী ? কি তার পরিচয় ? উদ্ধারের ৩৮দিনেও এ প্রশ্নের জবাব মেলেনি। অবশ্য এর বড় কারণ হচ্ছে সে শ্রবণ শক্তিহীন ও বাকপ্রতিবন্ধী।

গত ১৩ ডিসেম্বর রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার নারুয়া বাজার থেকে ১৬/১৭বছরের বাকপ্রতিবন্ধী কিশোরীটিকে উদ্ধার করেন বাবর আলী নামের এক পান দোকানদার। বর্তমানে এই কিশোরী ফরিদপুরের টেপাখোলায় সেফ হোমে রয়েছে।

রাজবাড়ী পুলিশ কোর্টের নন জিআরও এসআই নুরুল ইসলাম জানান, গত ১৩ডিসেম্বর সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বালিয়াকান্দি উপজেলার নারুয়া বাজার গালর্স স্কুলের সামনে ১৬/১৭ বছরের শ্রবণ শক্তিহীন ও বাকপ্রতিবন্ধী ওই কিশোরীকে এলোমেলোভাবে ঘোরাফেরা করতে দেখে পান দোকানদার বাবর আলী তাকে তার হেফাজতে নেয়। এরপর সে কিশোরীটির বাবা-মাকে খোঁজার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। এরপর পান দোকানদার বাবর আলী বালিয়াকান্দি উপজেলা সমাজসেবা অফিসকে অবহিত করে গত ২৪ডিসেম্বর কিশোরীটিকে রাজবাড়ী জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরে নিয়ে আসে।

রাজবাড়ী সমাজসেবা অধিদপ্তরের প্রবেশন অফিসার মনির হোসেন জানান, বাবর আলী নামের এক পান দোকানদার গত ২৪ডিসেম্বর বাক প্রতিবন্ধী ওই কিশোরীকে আমাদের অফিসে নিয়ে আসে। এরপর আমি ওই দিনই কিশোরীটিকে আদালতে প্রেরণ করি। আদালতের বিচারক আবু হাসান খায়রুল্লাহ কিশোরীটিকে ফরিদপুর টেপাখোলা সেফহোমে রাখার নির্দেশ দেন। এরপর থেকে কিশোরীটি টেপাখোলার সেফহোমে রয়েছে। এখনো তার কোন পরিচয় জানা যায়নি।

 

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর