বসন্তপুরে চাচীকে কু-প্রস্তাব দেয়ার প্রতিবাদ করায় চাচাকে মারপিট

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ৩:১৮ অপরাহ্ণ ,১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ | আপডেট: ৩:১৮ অপরাহ্ণ ,১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬
পিকচার

স্টাফ রিপোর্টার : রাজবাড়ী সদর উপজেলার বসন্তপুর ইউনিয়নের বড় ভবানীপুর গ্রামে চাচীকে কু-প্রস্তাব দেওয়ার প্রতিবাদ করায় চাচাকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে লম্পট ভাতিজা। আহত অবস্থায় চাচা শামীম শেখকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনায় লম্পট সাহিদুল, তার বাবা আবুল ও বড় ভাই রেজাউলের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা ২/৩জনের বিরুদ্ধে রাজবাড়ী সদর থানায় মামলা দায়ের করেছে শামীমের মা ছালেহা বেগম। মামলার প্রেক্ষিতে সাহিদুল ও তার বাবা আবুলকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মামলা সূত্রে জানাগেছে, বড় ভবানীপুর গ্রামের মৃত হাতেম আলী শেখের দুইটি স্ত্রী ছিলো। প্রথম স্ত্রীর ঘরে তার ৩ ছেলে ও দুই মেয়ে এবং দ্বিতীয় স্ত্রী ছালেহা বেগমের ঘরে দুই ছেলে রয়েছে। তার প্রথম পক্ষের আবুলের ছোট ছেলে সাহিদুল দ্বিতীয় পক্ষের ছোট ছেলে শামীমের স্ত্রী রিনা বেগমকে মাঝেমধ্যেই কু-প্রস্তাব দিতো। শামীম এ ঘটনার প্রতিবাদ করলে সাহিদুল শামীমের উপর ক্ষিপ্ত হয়। এর জের ধরে গত ১৩ই ফেব্রুয়ারী রাত সাড়ে ৯টার দিকে শামীম বসন্তপুর বাজার থেকে বাড়ী ফেরার পথে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে সাহিদুল, তার বাবা আবুল ও বড় ভাই রেজাউলসহ অজ্ঞাতনামা ২/৩জন শামীমকে বাঁশের লাঠি দিয়ে বেধরক মারপিট করে। এছাড়াও তারা শামীমের কাছে থাকা নগদ ৩৫০০ টাকা ও  ৬ হাজার টাকা মূল্যের মোবাইল ফোনটি ছিনিয়ে নেয়। এ সময় শামীমের চিৎকারে আশেপাশের লোকজন আসলে উল্লেখিতরা দৌঁড়ে পালিয়ে যায় এবং যাবার সময় পরবর্তীতে শামীমকে খুন করবে বলে হুমকি দিয়ে যায়।  এরপর শামীমের মা ছালেহা বেগম ও বড় ভাই মমিন শেখ তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

এ ঘটনায় শামীমের মা ছালেহা বেগম বাদী হয়ে লম্পট সাহিদুল, তার বাবা আবুল ও বড় ভাই রেজাউলসহ অজ্ঞাতনামা ২/৩জনকে আসামী করে রাজবাড়ী সদর থানায় এ মামলাটি দায়ের করেন। মামলা নং -১৮, তাং-১৪/০২/২০১৬ইং। মামলার প্রেক্ষিতে ওইদিন বিকেলে লম্পট সাহিদুল ও তার বাবা আবুলকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

এ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা রাজবাড়ী সদর থানার এসআই সোলাইমান কাজী জানান, মামলার পর বসন্তপুর বাজার থেকে সাহিদুল ও তার বাবাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকী আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশি তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।

 


এই নিউজটি 648 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments