‘মাদক নির্মূলের হাতিয়ার ক্রীড়া’

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ১১:১১ অপরাহ্ণ ,৮ জুলাই, ২০১৬ | আপডেট: ৪:০৬ অপরাহ্ণ ,৯ জুলাই, ২০১৬
পিকচার

স্টাফ রিপোর্টার॥ মাদকের কড়াল গ্রাসে এক শ্রেণীর যুব সমাজ যখন দিন দিন ধ্বংসের পথে ধাবিত হচ্ছে, ঠিক তখনই সমাজ থেকে মাদক নির্মূলের ব্রত নিয়ে কাজ করে চলেছেন রাজবাড়ীর একদল ক্রীড়াপ্রেমী সচেতন যুবক। আর মাদক নির্মূলের প্রধান হাতিয়ার হিসেবে ক্রীড়াকেই বেছে নিয়েছেন এসকল যুবকেরা। তাদের বিশ্বাস যে যুবক অন্তর থেকে খেলাধুলাকে ভালোবাসে, সে কখনো মাদকের সংস্পর্শে যেতে পারে না। তাই ‘বনানী সংঘ’ নামে একটি ক্লাবে একতাবদ্ধ হয়ে যুব সমাজকে খেলাধুলায় উদ্বুদ্ধ করার লক্ষ্যে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন রকমের খেলাধুলার আয়োজন করে চলেছেন এসকল ক্রীড়াপ্রেমী যুবকেরা।

পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে একটি মাদক বিরোধী প্রিতী ফুটবল খেলার আয়োজন করেছেন তারা। এ খেলায় মোট ৪টি দল অংশগ্রহণ করেছে। অবাক করা ভিন্নরকম নামকরণের এ দলগুলো হলো- সিডর একাদশ,  আইলা একাদশ , রোয়ানু একাদশ ও টাইফুন একাদশ। দলগুলোর এ ভিন্নরকম নামকরণের পিছনে রয়েছে একটি নির্দিষ্ট কারণ।

শুক্রবার (৮ জুলাই) বিকেল সাড়ে ৪টায় রাজবাড়ী জেলা শহরের কলোজপাড়া এলাকায় ‘বনানী সংঘ’ ক্লাবের মাঠে প্রিতী ফুটবল খেলার উদ্ভোধনী খেলা অনুষ্ঠিত হয়। এ খেলায় রোয়ানু একাদশ বনাম টাইফুন একাদশ অংশগ্রহণ করে ০৪-০২ গোলে টাইফুন একাদশ বিজয়ী হয়।

বনানী সংঘ ক্লাবের সদস্য মেজবাহ্ উদ্দিন সেতু বলেন, মাদকের কড়াল গ্রাসে আমাদের যুব সমাজ  দিন দিন ধ্বংসের পথে ধাবিত হচ্ছে। কিন্তু আমরা আমাদের যুবক ভাইদের জীবনকে ধ্বংস হতে দিবো না। মাদকমুক্ত সমাজ ব্যবস্থা গড়ে তোলার লক্ষে আমরা কাজ করে চলেছি। আমরা ‘বনানী সংঘ’ ক্লাবের সাথে যারা জড়িত রয়েছি তারা সকলেই খেলাধুলাকে ভালোবাসি। তাই আমরা খেলাধুলার মাধ্যমেই সমাজ থেকে মাদক নির্মূল করবো। আমাদের বিশ্বাস যে যুবক খেলাধুলাকে অন্তর থেকে ভালোবাসে, সে কখনো মাদকের সংস্পর্শে যেতে পারে না। তাই যুব সমাজকে খেলাধুলায় উদ্বুদ্ধ করার লক্ষ্যে আমরা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন রকমের খেলাধুলার আয়োজন করি।

খেলায় অংশগ্রহণকারী দলগুলোর ভিন্নরকম নাম প্রসঙ্গে সেতু বলেন, পৃথিবীতে যতগুলো প্রাকৃতিক দুর্যোগ রয়েছে তাদের মধ্যে ঘুর্ণিঝড় অন্যতম। যা প্রবল বেগে ছুটে চলার সময় কোন মানুষ তার মোকাবেলা করতে পারে না।  আমরা খেলাধুলার মাধ্যমে সমাজ থেকে ঘুর্ণিঝড়ের গতিতে মাদক নির্মূল করবো, কোন মানুষ মাদকের পক্ষে কাজ করে আমাদের মোকাবেলা করতে পারবে না। মূলত এমন চিন্তাধারা থেকেই ঘুর্ণিঝড়ের নামে দলগুলোর নামকরণ করা হয়েছে।

সেতু বলেন, শনিবার (৯ জুলাই) সিডর একাদশ বনাম আইলা একাদশের খেলা অনুষ্ঠিত হবে। এ খেলায় যে দল বিজয়ী হবেন রোববার (১০ জুলাই) টাইফুন একাদশের সাথে সে দলের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হবে।

ঈদ ছাড়াও বছরের বিভিন্ন সময়ে ‘বনানী সংঘ’ ক্লাবের উদ্যোগে মাদক বিরোধী বিভিন্ন খেলার আয়োজন করা হয়ে থাকে বলে জানান সেতু। ‘বনানী সংঘ’ ক্লাবের পক্ষ থেকে মাদকের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে মাদক নির্মূলের উদ্দেশ্যে কাজ করার জন্য সমাজের সকল শ্রেণীপেশার মানুষের প্রতি অনুরোধ জানান তিনি।

 


এই নিউজটি 1139 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments