গোয়ালন্দে পানিবন্দী ১৫হাজার পরিবার, বন্ধ ৬শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ১০:০৩ পূর্বাহ্ণ ,২৯ জুলাই, ২০১৬ | আপডেট: ১০:০৩ পূর্বাহ্ণ ,২৯ জুলাই, ২০১৬
পিকচার

রাজবাড়ী নিউজ ডেস্ক :  বন্যার কারণে  রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার ৪টি ইউনিয়নের (উজানচর, দৌলতদিয়া, দেবগ্রাম ও ছোটভাকলা) প্রায় ১৫হাজার পরিবার পানিবন্দী হয়ে পড়েছেন। তলিয়ে গেছে কয়েক’শ হেক্টর জমির ফসল ও সবজি ক্ষেত। ৬টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কক্ষে পানি ও রাস্তা তলিয়ে যাওয়ায় পাঠদান কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করেছেন কর্তৃপক্ষ।

গত ২৪ঘন্টায় গোয়ালন্দ পয়েন্টে পদ্মা নদীতে আরো ৭ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়ে পানি বিপদসীমার ৬০সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল। পদ্মায় পানি বৃদ্ধির সাথে বেড়েছে ভাঙ্গনও। গত বুধবার রাত এগারোটার দিকে দৌলতদিয়ার বাহির চর ছাত্তার মেম্বার পাড়া কাঁচা সড়কের অন্তত ৩০ মিটার ভেঙ্গে পানি প্রবেশ করায় স্থানীয় চারটি গ্রামের প্রায় দুই হাজার পরিবার নতুন করে পানিবন্দী হয়ে পড়ে।

ফেরী ঘাট সড়কের প্রায় ২০ মিটার এলাকা ভেঙ্গে যাওয়ায় ৪নম্বর ফেরী ঘাট বন্ধ করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। ৩ ও ২নম্বর ফেরী ঘাটও ঝুঁকির মধ্য রয়েছে। ঘাট দু’টি দিয়ে ঝুঁকি নিয়ে ফেরীতে যানবাহন ওঠানামা করছে।

গোয়ালন্দ উপজেলা নির্বাহী অফিসার পঙ্কজ ঘোষ জানান, জরুরী ভিত্তিতে বন্যা কবলিত মানুষের তালিকা তৈরী করতে সকল ইউপি চেয়ারম্যানদের বলা হয়েছে। তালিকা তৈরী শেষে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হবে। ভাঙ্গন কবলিত ফেরী ঘাট ও ছাত্তার মেম্বার পাড়া সড়কের ব্যাপারে যথাযথ কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

(তথ্য সূত্র- দৈনিক মাতৃকন্ঠ)


এই নিউজটি 997 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments