,

ঢাকাস্থ রাজবাড়ী জেলা জনকল্যাণ সমিতির উদ্যোগে শতাধিক ছাত্র-ছাত্রীকে বৃত্তি প্রদান

রাজবাড়ী নিউজ ডেস্ক॥ ‘ঢাকাস্থ রাজবাড়ী জেলা জনকল্যাণ সমিতি’র উদ্যোগে বিভিন্ন কলেজের শতাধিক ছাত্র-ছাত্রীকে বৃত্তি প্রদান করা হয়েছে।

শুক্রবার (২৯ জুলাই) বিকেলে জেলা শিল্পকলা একাডেমী মিলনায়তনে জমকালো অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এ বৃত্তি প্রদান করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশের সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও সমিতির প্রধান উপদেষ্টা মোহাম্মদ আবু হেনা।

রাজবাড়ী জেলা জনকল্যাণ সমিতির সভাপতি, চট্টগ্রাম ওয়াসা’র চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশনের সচিব(পিআরএল) মোঃ শাহজাহান মোল্লার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সমিতির উপদেষ্টা ও রাজবাড়ী-১ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব কাজী কেরামত আলী, রাজবাড়ী-২ আসনের সংসদ সদস্য মোঃ জিল্লুল হাকিম, দায়িত্বপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মোঃ আশরাফ হোসেন, পুলিশ সুপার জিহাদুল কবির পিপিএম, রাজবাড়ী সদর উপজেলা পরিষদের চেয়রম্যান এডঃ এম.এ খালেক, বালিয়াকান্দি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, রাজবাড়ী পৌরসভার মেয়র মহম্মদ আলী চৌধুরী, পাংশা পৌরসভার মেয়র আব্দুল আল মাসুদ বিশ্বাস এবং সমিতির উপদেষ্টা ও সাবেক সভাপতি প্রফেসর ডাঃ কে.এম.এইচ.এস সিরাজুল হক।
স্বাগত বক্তব্য রাখেন সমিতির সহ-সভাপতি ও অনুষ্ঠান আয়োজক কমিটির আহবায়ক প্রকৌশলী হারুন-অর রশিদ বাদশা। আরো বক্তব্য রাখেন সমিতির সাধারণ সম্পাদক এন.এ.এম ইফতেখার রফিক। অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন সমিতির শিক্ষা, সাহিত্য ও ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক রীতা পারভীন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার মোহাম্মদ আবু হেনা বলেন, বর্তমানে শিক্ষার প্রসার ঘটেছে। কিন্তু তা কতটা মানসম্পন্ন সে সম্পর্কে কি আমরা সচেতন হতে পেরেছি? শিক্ষা মানে মনের বিস্তৃতি, মনটাকে প্রসারিত করা। মনের ভিতর দৃঢ়তা না থাকলে সেই শিক্ষার কোন মূল্য নেই। অসহায় মানুষকে সহায়তার বিষয়টি সবাইকে উপলব্ধি করতে হবে। রাজবাড়ীতে একটা বিশ্ববিদ্যালয় করার ব্যাপারে সিরিয়াসলি চিন্তা করতে হবে। জুট এন্টারপ্রিনিয়ার সেন্টার করতে পারলে জুটেরও সদ্গতি হবে, মানুষেরও উন্নতি হবে। ব্যাপকভাবে পশু খামার এবং বাঘাবাড়ীর মতো মিল্ক প্লান্ট করলে এ অঞ্চলের মানুষ উপকৃত হবে। মীর মশাররফ হোসেন স্মৃতিকেন্দ্রটি ঠিকমতো সংরক্ষণ ও যথাযথভাবে ব্যবহারের পাশাপাশি কাজী মোতাহার হোসেনেরও স্মৃতিকেন্দ্র তৈরী করতে হবে। এ ব্যাপারে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সচিব আকতারী মুমতাজের সাথে কথা হয়েছে। এ ব্যাপারে সে সহযোগিতা করার আশ্বাস দিয়েছে।

তিনি বলেন, মুখস্থবিদ্যা চৌর্যবৃত্তি ছাড়া কিছুই নয়, এজন্য শিক্ষার্থীদের সৃজনশীল হতে হবে। দুরবস্থা দূর করে মহাসড়কগুলোর উন্নয়নের ব্যাপারে মনোযোগী হতে হবে। শুধুমাত্র মহাসড়কের অব্যবস্থাপনার কারণেই রাজিয়া বেগমের মতো একজন ট্যালেন্ট মহিলা অফিসার(সচিব)কে আমাদেরকে হারাতে হয়েছে। তিনি রাজবাড়ীর প্রথম মহিলা ডিসি ছিলেন। জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসকে বর্জন করতে হবে। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে সহযোগিতা করতে হবে। হৃদতা, সৌহার্দ্য, বন্ধুত্বের সঙ্গে একযোগে কাজ করলে আমরা এগিয়ে যেতে পারব।

এ ছাড়াও তিনি নদী ভাঙ্গন রোধে রাজবাড়ীর বিভিন্ন স্থানে নদী থেকে বালু উত্তোলন বন্ধের বিষয়ে পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্য প্রশাসনের প্রতি আহবান জানান।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সংসদ সদস্য আলহাজ্ব কাজী কেরামত আলী বলেন, রাজবাড়ীর অনেকেই প্রশাসনসহ দেশের অনেক গুরুত্বপূর্ণ অবস্থানে রয়েছেন। পররাষ্ট্র সচিব, রাজউকের চেয়ারম্যান, কাস্টমসের গোয়েন্দা প্রধান রাজবাড়ীর মানুষ। তারা রাজবাড়ীর মুখ উজ্জল করেছেন। রাজবাড়ীতে একটা বড় অডিটোরিয়াম করতে পারিনি, এটা আমাদের জন্য লজ্জাস্কর ব্যাপার। রেলওয়ে হোসনাবাদ হলের স্থলে আধুনিক অডিটোরিয়াম করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এ ব্যাপারে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী রেলমন্ত্রীকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনাও দিয়েছেন। জেলখানা থেকে শ্রীপুর পর্যন্ত সড়কটি ড্রেনেজসহ চারলেন করা হবে। ভাটিয়াপাড়া ও ফরিদপুর রেললাইন ২টি চালু হলেও সেগুলোতে মাত্র ১টি করে আন্তঃ নগর ট্রেন চলছে। ওই রুট দু’টিতে অন্ততঃ ১টি করে হলেও লোকাল ট্রেন দিলে সাধারণ যাত্রীরা উপকৃত হতো। এ ব্যাপারে চেষ্টা করা হচ্ছে। দলমত নির্বিশেষে দেশটাকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়াই হোক আমাদের প্রত্যয়।

রাজবাড়ী-২ আসনের সংসদ সদস্য মোঃ জিল্লুল হাকিম বলেন, যখনই কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক নিয়োগের প্রসঙ্গ আসে তখন ম্যানেজিং কমিটির সদস্যদের চোখ চকচক করতে থাকে। হয় নিজের আত্মীয়-স্বজনের চাকুরী হবে, অথবা নিয়োগ বাণিজ্য হবে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে নিয়োগ বাণিজ্য না হলে সেখানকার শিক্ষার্থীরা ভাল করে। এজন্য লোভ-লালসার উর্দ্ধে থেকে শিক্ষক নিয়োগ বাণিজ্য বন্ধ করতে হবে। পাংশা, বালিয়াকান্দিতে কিছু ভাল শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান রয়েছে যেগুলোর শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক ভর্তি কিংবা নিয়োগ পরীক্ষায় ভাল করে। প্রতিষ্ঠানগুলোতে নিয়োগ বাণিজ্য হয় না বলেই শিক্ষার্থীরা ভাল করে। দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া পয়েন্টে ২য় পদ্মা সেতুর কাজ শুরুর ব্যাপারে লাভলী চৌধুরীর উপস্থিতিতে আমি প্রধানমন্ত্রীকে বলেছি। প্রধানমন্ত্রী কথা দিয়েছেন। পাংশার সেনগ্রাম-হাবাসপুর পয়েন্টে এলাকার কোন লোককে বালু তুলতে দেইনা। সম্প্রতি কুষ্টিয়া-পাবনার কিছু লোক রাতের আঁধারে সেখান থেকে বালু কাটছে। তাদের কাছে অস্ত্রসস্ত্র থাকে। এ ব্যাপারে পুলিশ প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। যেভাবেই হোক এটা আপনারা বন্ধ করুন, নইলে নদী ভাঙতে ভাঙতে ওই এলাকার লোক নিঃস্ব হয়ে যাবে।

সমিতির উদ্দেশ্যে তিনি আরো বলেন, মানুষের সাথে সম্পৃক্তকরণে কেন যেন তাদের অনীহা। নেতাদের উদ্যোগ, চিন্তা-চেতনা ও সিদ্ধান্তের অভাব রয়েছে। যদি সমিতির শ্রীবৃদ্ধি বাড়াতে হয়, তাহলে আরো অধিক মানুষকে সম্পৃক্ত করার চিন্তা করতে হবে। সমিতিকে সমৃদ্ধ করতে হবে। সবসময় কম খরচ করার মনোভাব পরিত্যাগ করতে হবে। সমিতির একটা অফিস পর্যন্ত নাই। ভালভাবে চালানোর জন্য যা যা করা দরকার করতে হবে।
দায়িত্বপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মোঃ আশরাফ হোসেন বলেন, চলমান জেলা প্রশাসক সম্মেলনের ১ম দিন আমাদের জেলা প্রশাসক ২য় পদ্মা সেতুর বিষয়টি উত্থাপন করেছেন। ইতিবাচক সাড়া পাওয়া গেছে। আগের জেলা প্রশাসক আগের জেলা প্রশাসক সম্মেলনে গোয়ালন্দে একটি অর্থনৈতিক জোন করার প্রস্তাব উত্থাপন করেছিলেন। সেখানে ৫০ একরের মতো জমি অধিগ্রহণের জন্য চিহ্নিত করা হয়েছে।

পুলিশ সুপার জিহাদুল কবির পিপিএম বলেন, সবার সহযোগিতা পেলে সমাজ থেকে জঙ্গিবাদের বিষবাষ্প আমরা উপড়ে ফেলতে পারব। শিক্ষার্থীরা প্রযুক্তির সর্বোচ্চ ব্যবহার করবে। জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস থেকে দূরে থাকবে।
অন্যান্য বক্তাগণ সমিতির দীর্ঘ পথচলার ইতিহাস তুলে ধরেন এবং শুভানুধ্যায়ীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান। এ ছাড়াও তারা সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে সংসদ সদস্য আলহাজ্ব কাজী কেরামত আলী সমিতির ফান্ডে নগদ ১লাখ টাকা অনুদান প্রদান করেন এবং রাজবাড়ী পৌরসভার মেয়র মহম্মদ আলী চৌধুরী বার্ষিক ৫০হাজার, পাংশা পৌরসভার মেয়র বার্ষিক ৫০হাজার ও বালিয়াকান্দি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বার্ষিক ১০ হাজার টাকা করে অনুদান দেওয়ার ঘোষণা দেন।

অতিথিদের বক্তব্যের পর বিভিন্ন কলেজের মোট ১০৩ জন ছাত্র-ছাত্রীকে জনপ্রতি ১৫০০ টাকা করে বৃত্তি প্রদান করা হয়। বৃত্তি প্রদানের পর জেলা শিল্পকলা একাডেমীর শিল্পীরা মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করে।

(তথ্য ও ছবি সূত্র – দৈনিক মাতৃকন্ঠ)

 

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর