রাজবাড়ী সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ে ‘ড্রোন উড্ডয়ন’

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ১০:২৮ অপরাহ্ণ ,২৫ আগস্ট, ২০১৬ | আপডেট: ১০:৩৩ অপরাহ্ণ ,২৫ আগস্ট, ২০১৬
পিকচার

রাজবাড়ী নিউজ ডেস্ক॥ মনুষ্যবিহীন ড্রোন উড্ডয়নের মধ্য দিয়ে রাজবাড়ী সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ে দিনব্যাপী বার্ষিক বিজ্ঞান উৎসব পালন করেছে শিক্ষার্থীরা।

বুধবার (২৪ আগস্ট) এই  উৎসব পালন করা হয়।

এ উপলক্ষে বিদ্যালয়ের হল রুমে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক জিনাত আরা বলেন, আজকে এই বার্ষিক বিজ্ঞান উৎসবে যারা অংশগ্রহণ করেছে তারা হচ্ছে এদেশের ভবিষ্যত প্রজন্ম। আমাদের দেশে যে মেধা ও মনন আছে সেটা যদি একটু চর্চা করা যায় তাহলে ভবিষ্যত প্রজন্ম অনেক দুর এগিয়ে যাবে। আমরা ইতিমধ্যে মধ্যম আয়ের দেশে পরিনত হয়েছি। আমাদের প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত ভিশন-২০২১ সামনে রেখে যে কার্যক্রম চলছে তার মধ্যে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি একটি। এই বিজ্ঞানের পরিধিকে অনেকদুর এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে।

শিক্ষার্থীদের তিনি আরো বলেন, তোমরা অনেক ভাগ্যবান। কারণ এখন মাল্টিমিডিয়ার মাধ্যমে ক্লাস নেয়া হয়। যার ফলে তোমরা অনেক কিছু শিখতে ও জানতে পারছো। ভাল একটি পরিবেশে তোমরা লেখাপড়া করছো। সে কারণে তোমাদের কাছে ভাল কিছু প্রত্যাশা করছি। তোমরা অনেক দুর এগিয়ে যেতে পারবে।

জেলা প্রশাসক জিনাত আরা ছাত্রদের উদ্দেশ্যে আরো বলেন, তোমরা জ্ঞানী ও গুনীদের জীবনী পড়বে। তাহলে আরো ভাল করতে পারবে। তরুণ প্রজন্ম যারা আছো তাদের কাছে আমাদের অনেক আশা ও প্রত্যাশা। দেশকে আরো এগিয়ে নিতে তোমরা ভূমিকা রাখবে।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আজিজা খানমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠনে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা শিক্ষা অফিসার সৈয়দ সিদ্দিকুর রহমান, প্রাক্তন অধ্যক্ষ প্রফেসর শংকর চন্দ্র সিনহা ও রাজশাহী সরকারী পিএন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোছাঃ শাহারা খাতুন।

এছাড়াও বক্তব্য রাখেন রাজবাড়ী সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক মঞ্জুরুল হক। অনুষ্ঠানে উপস্থাপনা করেন সহকারী শিক্ষক প্রদ্যুৎ কুমার দাস।

অনুষ্ঠানে ড্রোন নির্মাতা হিসেবে অতিথিদের কাছ থেকে বিশেষ পুরস্কার গ্রহণ করে বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্র সামিট রিয়াশাদ ইবনে রইচ ও সুদীপ্ত মন্ডল। এছাড়াও ২০১৫সালে জাতীয় পর্যায়ের ২য় হিসেবে সামিট রিয়াশাদ ইবনে রইচ, সুদীপ্ত মন্ডল ও ফেরদৌস নাইম পুরস্কার প্রদান করা হয়।
আলোচনা সভা শেষে বার্ষিক বিজ্ঞান উৎসবে ছাত্রদের আবিস্কৃত বিভিন্ন ধরণের ৩৯টি প্রজেক্ট পরিদর্শন করেন অতিথিরা। পরে বিদ্যালয়ের মাঠে জেলা প্রশাসক জিনাত আরা রিমোট কন্ট্রোলের মাধ্যমে ড্রোন উড্ডয়ন উদ্বোধন করেন।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মোঃ রেজাউল করিম জানান, মেধাবী ছাত্র সামিট ও সুদীপ্ত মন্ডল গত ৩বছর যাবৎ বিজ্ঞান মেলায় জেলা, বিভাগ ও জাতীয় পর্যায়ে তাদের সাফল্যর ধারাবাহিকতা অব্যাহত রেখেছে। এ বছর তারা মনুষ্যবিহীন ড্রোন আবিস্কারের আগ্রহ প্রকাশ করলে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আজিজা খানম এই ক্ষদে বিজ্ঞানীদ্বয়কে ড্রোন তৈরীর জন্য গত মার্চ মাসে স্কুল ফান্ড থেকে ৪২হাজার টাকা এবং পরে আরো সাড়ে ৫হাজার টাকা প্রদান করেন। পরবর্তীতে সামিট ও সুদীপ্ত অনলাইনের মাধ্যমে অর্ডার দিয়ে যন্ত্রাংশ ক্রয় করে ড্রোনটি তৈরী করে।

সহকারী শিক্ষক মোঃ রেজাউল করিম আরো জানান, মাত্র ৮শত গ্রাম ওজন ও ১৪ইঞ্চি দৈর্ঘ্যর এই ড্রোনটি ভূমি থেকে ৪কিলোমিটার উপরে পর্যন্ত উড্ডায়ন করতে পারবে। যাতে সংযোজিত আছে আধুনিক ক্যামেরা। তিনি বলেন, বুধবার ড্রোন উড্ডয়ন উদ্বোধনের আগে সামিট ও সুদীপ্ত শহরের রেলওয়ে মাঠে একবার পরীক্ষামূলক উড্ডয়ন করেছিল।

(সূত্র- দৈনিক মাতৃকন্ঠ)


এই নিউজটি 1298 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments