গোয়ালন্দের দুই লক্ষ মানুষের চিকিৎসা সেবা নিয়ে তামাশা!

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ৯:১৫ অপরাহ্ণ ,২৭ অক্টোবর, ২০১৬ | আপডেট: ৯:১৬ অপরাহ্ণ ,২৭ অক্টোবর, ২০১৬
পিকচার

রাজবাড়ী নিউজ ডেস্ক : কিভাবে চলছে ৫০ শয্যার গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স? প্রশাসন কি গোয়ালন্দ উপজেলা বাসীর স্বাস্থ্য সেবা নিয়ে প্রহসন করছে? এমন প্রশ্ন উপজেলার দুই লক্ষাধিক মানুষের জন্য একমাত্র হাসপাতাল গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিতে আসা সাধারন মানুষের মুখে মুখে।

উপজেলার ছোটভাকলা ইউনিয়নের নলডুবি থেকে বৃদ্ধ মাকে নিয়ে হাসপাতালের আউটডোরে এসেছিলেন আরমান শেখ (৪৮)। কাঙ্খিত চিকিৎসকের দেখা পেলেন না তিনি। আরমানের মা গোয়ালন্দনিউজকে জানালেন, কিছুদিন আগে এখানে বেশ কয়েকজন ভালো ডাক্তার ছিলেন। তারা এখন কেউ নেই। এ হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসে তার মতো এমন হতাশ অনেকেই।

সরেজমিনে হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায়, ৫০ শয্যার এ হাসপাতালে মেডিকেল অফিসার আছেন মাত্র ৩ জন। ৩ জন মিলেই সামাল দিচ্ছেন আউটডোর, জরুরী বিভাগ এবং আন্তঃবিভাগ। আর বিশেষজ্ঞ আছেন মাত্র ২ জন। হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. রফিকুল ইসলাম নিয়মিত এলেও শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. নাজনীন সরকার আসেন সপ্তাহে মাত্র ২/৩ দিন।

চিকিৎসক না থাকায় আউটডোরে চিকিৎসা নিতে আসা শত শত রোগীকে চিকিৎসা দিচ্ছেন মেডিকেল এ্যাসিসটেন্টরা। তাদের কাছে প্রাথমিক চিকিৎসা মিললেও চিকিৎসকের অভাবে মিলছে না পরিপূর্ণ চিকিৎসা সেবা। আউটডোরে চিকিৎসক এর পরিবর্তে মেডিকেল এ্যাসিসটেন্ট দেখে অনেকে রোগী না দ