২১শ’ ওরশযাত্রী নিয়ে বিশেষ ট্রেনের ভারত যাত্রা

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ১০:১২ অপরাহ্ণ ,১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ | আপডেট: ১২:০৩ পূর্বাহ্ণ ,১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭
পিকচার

স্টাফ রিপোর্টার॥ ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মেদিনীপুরে হজরত আলী আব্দুল কাদের শামসুল কাদের সৈয়দ শাহ্ মোরশেদ আলী আল-কাদেরী আল হাসানী ওয়াল হুসাইনী আল বাগদাদী আল মেদিনীপুরী (আ.)-এর বার্ষিক ওরশ শরীফে যোগ দিতে প্রতি বছরের মতো এবারও রাজবাড়ী থেকে ২১শ’ যাত্রী নিয়ে ছেড়ে গেছে একটি বিশেষ ট্রেন।

মঙ্গলবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) রাত ১০টায় রাজবাড়ী রেলস্টেশন থেকে ২২টি বগি সম্বলিত বিশেষ ট্রেনটি ছেড়ে যায়। ট্রেন ছাড়ার সময় স্টেশনে হাজার হাজার মানুষ ওরশ যাত্রীদের বিদায় জানান।

বৃহস্পতিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) দিনগত রাতে মেদিনীপুরের মির্জা মহল্লায় অবস্থিত জোড়া মসজিদে ১১৬-তম বার্ষিক ওরশ অনুষ্ঠিত হবে। কাদেরীয়া তরীকার সাজ্জাদানশীন বড় হুজুরপাক কেবলা হযরত সৈয়দ শাহ্ রশীদ আলী আল্ কাদেরী আল হাসানী ওয়াল হুসাইনী আল্ বাগদাদী আল মেদিনীপুরী মাদ্দাজিলুহুল আলী পবিত্র ওরশ পরিচালনা করবেন।

বিশেষ ট্রেনে ওরশ যাত্রীদের মধ্যে প্রায় ৮০ জন স্বেচ্ছাসেবক ও চিকিৎসকসহ ১১শ’ ৪৫ জন পুরুষ, ৮৫৩ জন নারী এবং ৮৫ জন শিশু রয়েছে। অন্যান্য যাত্রীদের সাথে রাজবাড়ীর সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ্য কামরুন নাহার চৌধুরী লাভলী ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এ্যাড. এম.এ খালেকও বিশেষ ট্রেনে ওরশ শরীফে যাচ্ছেন। ওরশ শরীফ শেষে শনিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) বিশেষ ট্রেনটি রাজবাড়ী ফিরে আসবে।

রাজবাড়ী আঞ্জুমান-ই-কাদেরীয়ার সভাপতি কাজী ইরাদত আলী জানান, বাংলাদেশ ও ভারত সরকার যৌথভাবে ১৯০২ সাল থেকে ভারতের মেদিনীপুর ওরশ যাত্রীদের যাতায়াতের সুবিধার্থে এই বিশেষ ওরশ ট্রেন চালুর ব্যবস্থা করে। তারই ধারাবাহিকতায় বিগত ১১৫ বছর ধরে রাজবাড়ী থেকে বিশেষ ওরশ ট্রেনটি ছেড়ে যায়। মেদিনীপুর ওরশ শরীফের উল্লেখিত তারিখে রাজবাড়ীর খানকা-এ কাদেরীয়া বড় মসজিদেও ওরশ অনুষ্ঠিত হবে।

পবিত্র ওরশ শরীফ উপলক্ষে বিশেষ ট্রেন চলাচলের ব্যবস্থা করায় বাংলাদেশ ও ভারত সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন কাজী ইরাদত আলী। এছাড়াও বিশেষ ওরশ ট্রেনের যাত্রা উপলক্ষে সকলের কাছে দোয়া কামনা করেন তিনি।

উল্লেখ্য, বিশেষ ওরশ ট্রেন ছাড়াও রাজবাড়ী জেলা থেকে সড়ক ও আকাশ পথে বিপুল সংখ্যক ভক্ত ওরশে অংশ নেবেন বলে বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে।

রাজবাড়ী নিউজ২৪.কম/ আশিক

Comments

comments


এই নিউজটি 2468 বার পড়া হয়েছে
[fbcomments"]