,

সর্বশেষ :
রাজবাড়ীর সামাজিক সংগঠন ‘মানবতার জয়’-এর নবগঠিত কমিটির পরিচিতি সভা পদ্মা সেতুতে মাথা লাগার গুজব ছড়ানোয় রাজবাড়ীতে স্কুলছাত্র আটক অসুস্থ আ’লীগ নেতা সামশুল আলমের পাশে দাঁড়ালেন কাজী ইরাদত আলী রাজবাড়ীতে ভুয়া চিকিৎসক আটক, ২০ হাজার টাকা জরিমানা রাজবাড়ীতে আ’লীগ নেতার দুঃসময়ে পাশে দাড়াচ্ছেন না দলীয় নেতৃবৃন্দ! রাজবাড়ীর নবাগত জেলা প্রশাসককে গ্রাম পুলিশ বাহিনীর ফুলেল শুভেচ্ছা কৃষ্ণের ছদ্মবেশ নিয়েও পুলিশের হাতে ধরা পড়লো পলাতক আসামি লাল্টু গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে রাজবাড়ীতে বিএনপির বিক্ষোভ বসন্তপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক হলেন কাজী লুৎফর রাজবাড়ীর সামাজিক সংগঠন ‘মানবতার জয়’-এর পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন

‘নোবিপ্রবি’-তে শুরু হতে যাচ্ছে প্রতীকী জাতিসংঘ অধিবেশন

News

রাজবাড়ী নিউজ ডেস্ক : জাতিসংঘের মূল্যবোধে উজ্জীবিত হতে এবং বিশ্বশান্তি রক্ষায় ভবিষ্যতের দক্ষ কূটনীতিক তৈরির লক্ষ্যে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (নোবিপ্রবি) শুরু হতে যাচ্ছে চারদিন ব্যাপী প্রতীকী জাতিসংঘ অধিবেশন।

‘নোবিপ্রবি’ মডেল ইউনাইটেড এসোসিয়েশন (NSTUMUNA)-এর আয়োজনে আগামী ৪ থেকে ৭ মে পর্যন্ত চলবে এ অধিবেশন। অধিবেশনটিতে জাতীয়ভাবে সারাদেশ থেকে শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণের আহবান জানানো হয়েছে।

এটি ‘NSTUMUNA’- এর উদ্যোগে দ্বিতীয় অধিবেশন। এরআগে ২০১৬ সালে শুধুমাত্র নোবিপ্রবির ছাত্রদের বিপুল অংশগ্রহণের মাধ্যমে সফলভাবে অনুষ্ঠিত হয় Intra-NSTUMUN। এবারের অধিবেশনের প্রতিপাদ্য হচ্ছে- ‘শান্তির ঘোষণা পত্র রূপে নাগরিকের ক্ষমতায়ন’।

‘NSTUMUNA’- ছায়া জাতিসংঘ আয়োজন করার পাশাপাশি অন্যান্য বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে আয়োজিত ছায়া জাতিসংঘ সম্মেলনে প্রতিনিধি দল পাঠিয়ে আসছে। বরাবরই সেখানে সফলতার ছাপ রেখে এসেছে নোবিপ্রবির তরুণ শিক্ষার্থীরা।

‘NSTUMUNA’-এর উপদেষ্টা ফিশারিজ এন্ড মেরিন সায়েন্স বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মাহাবুবুর রহমান ফরহাদ বলেন, ‘বিশ্বকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে তরুণদেরকেই। নেতৃত্ববোধ, যুক্তিতর্ক,কূটনৈতিক বুদ্ধিই একজন আদর্শ দিকনির্দেশক সৃষ্টি করতে পারে।ছায়া জাতিসংঘ একজন দিকনির্দেশক এর ভিত্তি গঠন করে দেয়।

তিনি আরও বলেন, ‘NSTUMUNA’-এর উপদেষ্টা হিসেবে আমি সারা দেশের শিক্ষার্থীদের ‘NSTUMUNA-17’ এ অংশগ্রহণ করার জন্য নোবিপ্রবিতে আমন্ত্রণ জানাচ্ছি।

‘NSTUMUNA’-এর সেক্রেটারি জেনারেল মোফাসসের হায়দার ভূঁইয়া বলেন, ‘এ অধিবেশনটি পরিকল্পনা করা হয়েছে যেখানে প্রতিকী কূটনৈতিকরা বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চলে একটি আন্তর্জাতিক মানের সমাবেশে অনশগ্রহণ করতে পারবে।আমাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা থাকবে যেন বৈশ্বিক কূটনৈতিকরা নোবিপ্রবি প্রাঙ্গণে একটি আন্তরিক এবং প্রাণবন্ত পরিবেশ উপহার পায়।আমরা তরুণদের অগ্রগতির মাধ্যমে একটি উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ গঠন করায় বিশ্বাস করি। অধিবেশনে সবাইকে আমন্ত্রণ।

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর