,

সর্বশেষ :
শহিদদের শ্রদ্ধা জানাতে কলাগাছের স্মৃতির মিনার রাজবাড়ীতে বই মেলা শুরু রাজবাড়ীতে মেয়েকে ধর্ষণের দায়ে বাবার যাবজ্জীবন উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে ট্রাষ্টি বোর্ডকে আরও ৮ লাখ টাকা দিলেন ডা. আবুল হোসেন বালিয়াকান্দিতে শিশু ছাত্রীদের ধর্ষণ ও যৌন নিপীড়নের অভিযোগে শিক্ষক গ্রেফতার রাজবাড়ীতে ১৫ কেজি গাঁজাসহ স্বামী-স্ত্রী আটক রাজবাড়ীতে কলেজছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে রাজমিস্ত্রী আটক এক যুগ ধরে চিকিৎসাসেবার নামে প্রতারণা করে আসছেন রাজবাড়ীর পচা কর্মকার! সেদিন রোদ্দুর হয়নি বলেই আজ বৃষ্টি হলো… এহসান কলিন্স শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জনসভায় ফয়সাল সরদারের নেতৃত্বে লক্ষীকোলের ৫ শতাধিক নারী-পুরুষ

‘নোবিপ্রবি’-তে শুরু হতে যাচ্ছে প্রতীকী জাতিসংঘ অধিবেশন

News

রাজবাড়ী নিউজ ডেস্ক : জাতিসংঘের মূল্যবোধে উজ্জীবিত হতে এবং বিশ্বশান্তি রক্ষায় ভবিষ্যতের দক্ষ কূটনীতিক তৈরির লক্ষ্যে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (নোবিপ্রবি) শুরু হতে যাচ্ছে চারদিন ব্যাপী প্রতীকী জাতিসংঘ অধিবেশন।

‘নোবিপ্রবি’ মডেল ইউনাইটেড এসোসিয়েশন (NSTUMUNA)-এর আয়োজনে আগামী ৪ থেকে ৭ মে পর্যন্ত চলবে এ অধিবেশন। অধিবেশনটিতে জাতীয়ভাবে সারাদেশ থেকে শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণের আহবান জানানো হয়েছে।

এটি ‘NSTUMUNA’- এর উদ্যোগে দ্বিতীয় অধিবেশন। এরআগে ২০১৬ সালে শুধুমাত্র নোবিপ্রবির ছাত্রদের বিপুল অংশগ্রহণের মাধ্যমে সফলভাবে অনুষ্ঠিত হয় Intra-NSTUMUN। এবারের অধিবেশনের প্রতিপাদ্য হচ্ছে- ‘শান্তির ঘোষণা পত্র রূপে নাগরিকের ক্ষমতায়ন’।

‘NSTUMUNA’- ছায়া জাতিসংঘ আয়োজন করার পাশাপাশি অন্যান্য বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে আয়োজিত ছায়া জাতিসংঘ সম্মেলনে প্রতিনিধি দল পাঠিয়ে আসছে। বরাবরই সেখানে সফলতার ছাপ রেখে এসেছে নোবিপ্রবির তরুণ শিক্ষার্থীরা।

‘NSTUMUNA’-এর উপদেষ্টা ফিশারিজ এন্ড মেরিন সায়েন্স বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মাহাবুবুর রহমান ফরহাদ বলেন, ‘বিশ্বকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে তরুণদেরকেই। নেতৃত্ববোধ, যুক্তিতর্ক,কূটনৈতিক বুদ্ধিই একজন আদর্শ দিকনির্দেশক সৃষ্টি করতে পারে।ছায়া জাতিসংঘ একজন দিকনির্দেশক এর ভিত্তি গঠন করে দেয়।

তিনি আরও বলেন, ‘NSTUMUNA’-এর উপদেষ্টা হিসেবে আমি সারা দেশের শিক্ষার্থীদের ‘NSTUMUNA-17’ এ অংশগ্রহণ করার জন্য নোবিপ্রবিতে আমন্ত্রণ জানাচ্ছি।

‘NSTUMUNA’-এর সেক্রেটারি জেনারেল মোফাসসের হায়দার ভূঁইয়া বলেন, ‘এ অধিবেশনটি পরিকল্পনা করা হয়েছে যেখানে প্রতিকী কূটনৈতিকরা বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চলে একটি আন্তর্জাতিক মানের সমাবেশে অনশগ্রহণ করতে পারবে।আমাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা থাকবে যেন বৈশ্বিক কূটনৈতিকরা নোবিপ্রবি প্রাঙ্গণে একটি আন্তরিক এবং প্রাণবন্ত পরিবেশ উপহার পায়।আমরা তরুণদের অগ্রগতির মাধ্যমে একটি উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ গঠন করায় বিশ্বাস করি। অধিবেশনে সবাইকে আমন্ত্রণ।

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর