রাজবাড়ীতে বিয়ের দাবিতে সেনা সদস্যের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন

|রাজবাড়ী নিউজ24

প্রকাশিত: ৪:৫১ অপরাহ্ণ ,২০ এপ্রিল, ২০১৭ | আপডেট: ২:৫২ অপরাহ্ণ ,২২ এপ্রিল, ২০১৭
পিকচার

ফকীর আশিকুর রহমান, নিউজরুম এডিটর॥ রাজবাড়ী জেলা সদরের  মুলঘর ইউনিয়নের বাঘিয়া গ্রামে বিয়ের দাবিতে শামীম মোল্লা (২৫) নামে এক সেনা সদস্যের বাড়িতে তিনদিন ধরে অনশন করছেন তার প্রেমিকা সুমি খাতুন (২১)

বৃহস্পতিবার (২০ এপ্রিল) দুপুরে শামীম মোল্লার বাড়িতে গিয়ে দেখা যায় সুমি খাতুন শামীমের শোবার ঘরে বসে আছেন

শামীম বাঘিয়া গ্রামের মো. আক্কাছ আলী মোল্লার ছেলে। তিনি বর্তমানে কুমিল্লার ময়নামতি ক্যান্টনমেন্টে সৈনিক পদে কর্মরত রয়েছেন। তার প্রেমিকা সুমি রাজবাড়ী জেলা সদরের শহীদওহাবপুর ইউনিয়নের গোয়ালন্দমোড়ের মো. বাবুল মিজির মেয়ে

সুমি খাতুন বলেন, দুই বছর আগে শামীমের সঙ্গে আমার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এরপর থেকে শামীম বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে আমার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করে। কিন্তু আমি বিয়ে করার কথা বললেই সে নানান টালবাহানা করতে থাকে। দেড় মাস আগে শামীম দুই মাসের ছুটিতে বাড়িতে আসে। এরমাঝেও আমার সঙ্গে সে শারীরিক সম্পর্ক করেছে। কিন্তু বিয়ের কথা বললে সে রাজী হয় না। মঙ্গলবার (১৮ এপ্রিল) সকালে আমি বিয়ের দাবিতে তার বাড়িতে এসে উঠেছি। কিন্তু আমি আসার পর বুধবার (১৯ এপ্রিল) শামীম বাড়ি থেকে পালিয়েছে

তিনি আরও বলেন, এই তিনদিন ধরে আমি শুধু পানি খেয়ে বেঁচে আছি। শামীম আমাকে বিয়ে না করা পর্যন্ত আমি অন্য কিছু খাবো না। আর যদি সে আমাকে বিয়ে না করে তাহলে আমি এই বাড়িতেই আত্মহত্যা করবো

শামীম সুমির প্রেমের সম্পর্কের সত্যতা স্বীকার করে শামীমের বাবা আক্কাছ আলী মোল্লা বোন আকলিমা বেগম বলেন, আমরা তাদের ভালোবাসাকে স্বীকার করে সুমিকে বাড়ির বউ হিসেবে মেনে নিতে চেয়েছি। বিষয়ে সুমির পরিবারের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে বুধবার (১৯ এপ্রিল) তাদের বিয়ে সম্পন্ন করার কথা ছিল। কিন্তু ওইদিন বিকেল থেকেই শামীম পলাতক থাকায় তা আর সম্ভব হয়নি। শামীমের ফোন নম্বর বন্ধ থাকায় আমরা তার সঙ্গে যোগাযোগও করতে পারছি না

স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল হালিম মোল্লা বলেন, প্রেমের সম্পর্কের সূত্র ধরে মেয়েটি শামীমের বাড়িতে এসে অনশন করছে। ইতোমধ্যে এলাকার সবাই ঘটনা জেনে গেছে। আমরা বারবার শামীম তার পরিবারকে বলেছি মেয়েটিকে স্বীকৃতি দিয়ে ঘরে তুলে নিতে। কিন্তু তারা আমাদের কথা শুনছেন না

সুমির বাবা মো. বাবুল মিজি বলেন, শামীম দুই বছর ধরে আমার মেয়ের জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলছে। এখন যদি সে আমার মেয়েকে বউ হিসেবে ঘরে তুলে না নেয় তাহলে আমি আইনের আশ্রয় নিতে বাধ্য হবো

এ বিষয়ে সেনা সদস্য শামীমের সঙ্গে কথা বলার জন্য তার মোবাইল নম্বরে বার বার ফোন দেওয়া হলেও নম্বর বন্ধ পাওয়া যায়।


এই নিউজটি 7363 বার পড়া হয়েছে

Comments

comments