,

রাজবাড়ীতে প্রতারক চক্রের ৫ সদস্য আটক

News

আশিকুর রহমান॥ রাজবাড়ীতে লটারি জেতার কথা বলে প্রতারণা করে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে বিকাশের মাধ্যমে টাকা হাতিয়ে নেওয়া চক্রের পাঁচ সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়নের (র‌্যাব) সদস্যরা। এসময় তাদের কাছ থেকে প্রতারণা করে হাতিয়ে নেওয়া এক লাখ ২২হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৪ জুলাই) দুপুর ১টার দিকে প্রেস বিফ্রিংয়ের মাধ্যমে র‌্যাব-৮ ফরিদপুর ক্যাম্পের দুই নম্বর কোম্পানির অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রইছ উদ্দিন বিষয়টি সাংবাদিকদের জানান।

আটক ব্যক্তিরা হলেন- রাজবাড়ী জেলা সদরের বসন্তপুর ইউনিয়নের রাজাপুর গ্রামের মৃত মোয়াজ্জেম মোল্লার ছেলে মো. কাওছার মোল্লা (২৫), একই গ্রামের মৃত খালেক মোল্লার ছেলে মো. আরিফ মোল্লা (২০), মো. রুস্তম মোল্লার ছেলে মো. রাজিব মোল্লা (২৩), মৃত খন্দকার আবুল হোসেনের ছেলে খন্দকার মইনুল ইসলাম ওরফে মাসুদ খন্দকার ও কৈজুরি গ্রামের মো. খোরশেদ আলমের ছেলে মো. রবিউল ইসলাম (২৮)।

প্রেস বিফ্রিংয়ে জানানো হয়, আটক ব্যক্তিরা গত ১৩জুন ঢাকার সূত্রাপুর থানার বাসিন্দা রুনালী খান নামে এক বিউটিশিয়ানের কাছে একটি মোবাইল সিম কোম্পানির উদ্ধতন কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে ফোন দেন। ফোন দিয়ে তারা রুনালী খানকে জানান, তিনি লটারিতে ১১লাখ টাকা জিতেছেন। ওই টাকা দেওয়ার প্রলোভণ দেখিয়ে তারা রুনালীর কাছ থেকে বিভিন্ন সময়ে বিকাশের মাধ্যমে লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নেন।

পরে রুনালী খান বিষয়টি প্রতারণা বুঝতে পেরে সূত্রাপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন এবং র‌্যাব-৮ ফরিদপুর ক্যাম্পকে বিষয়টি জানান। র‌্যাব সদস্যরা সোমবার (৩ জুলাই) রাত ১০টা থেকে মঙ্গলবার (৪ জুলাই) ভোর ৬টা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে রাজবাড়ী জেলা সদরের বসন্তপুর ইউনিয়নের রাজাপুর ও কৈজুরি গ্রাম থেকে প্রতারক চক্রের পাঁচ সদস্যকে আটক করেন। এসময় তাদের কাছ থেকে প্রতারণা করে হাতিয়ে নেওয়া এক লাখ ২২হাজার টাকা ও প্রতারণার কাজে ব্যবহৃত বিপুল পরিমাণ ভূয়া নিবন্ধনকৃত সীমকার্ড উদ্ধার করা হয়।

আটক ব্যক্তিদের রাজবাড়ী সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানানো হয়।

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর