,

রাজবাড়ীতে যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু

News

রাজবাড়ীতে আব্দুল্লাহ্ আল মামুন (৩০) নামে এক যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৩১ আগস্ট) বেলা ১১টায় রাজবাড়ী জেলা শহরের হোটেল গোল্ডেনে এ ঘটনা ঘটে।

আব্দুল্লাহ্ আল মামুন রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার বাবুপাড়া ইউনিয়নের আমতলা গ্রামের মৃত মাওলানা আব্দুর রহমানের ছেলে। তিনি ঢাকাস্থ রাজবাড়ী জেলা জাতীয়তাবাদী ছাত্র ফোরামের আহ্বায়ক ছিলেন।

মামুনের সঙ্গী রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার রতনদিয়া ইউনিয়নের তফাদিয়া গ্রামের ওহাব মোল্লার ছেলে মিজানুর রহমান লিটু (২৫) বলেন, পাশাপাশি উপজেলায় বাড়ি হওয়ায় মামুন আমার পূর্ব পরিচিত। বুধবার (৩০ আগস্ট) সন্ধ্যায় আমরা গাবতলী বাস টার্মিনাল থেকে বাসে রাজবাড়ীর উদ্দেশ্যে রওনা হই। রাতে রাজবাড়ী বড়পুলে পৌঁছাতে অনেক রাত হওয়ায় মামুন হোটেল গোল্ডেনের একটি কক্ষ ভাড়া নেন। মাঝেমধ্যেই মামুন ওই হোটেলে থাকতেন। এরপর আমরা হোটেল থেকে খাবার কিনে খেয়ে ঘুমিয়ে পড়ি। সকাল সাড়ে ৭টায় মামুন আমাকে ডেকে বলে তিনি ‍অসুস্থ্য বোধ করছেন। ওই সময় ওষুধ খেয়ে তিনি একটু সুস্থ্য বোধ করেন। এরপর সাড়ে ১১টায় মামুন আবারও অসুস্থ্যতা বোধ করেলে তাকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে নিয়ে যাই। সেখানে নেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

 রাজবাড়ী সদর হাসপাতলের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. সুনীল কুমার রায় বলেন, মামুনকে সকাল সাড়ে ১১টায় মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। ধারণা করা হচ্ছে হাসপাতালে আনার ২০ মিনিট আগে তিনি মারা যান। এরপর সঙ্গে সঙ্গে আমরা থানায় খবর দেই। মামুনের শরীরে কোথাও কোনো আঘাতের চিহ্ন নেই। মামুনের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। তাৎক্ষণিকভাবে মৃত্যুর সঠিক কারণ বলা যাচ্ছে না। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন হাতে পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

রাজবাড়ী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুল বাশার মিয়া বলেন, মামুনের সঙ্গে থাকা যুবক মিজানুর রহমান লিটুকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। মামুনের অভিভাবকের সঙ্গে আলোচনা করে পরবর্তী আইনী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

রাজবাড়ী নিউজ২৪.কম/ আশিক

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর