,

সর্বশেষ :
সুষ্ঠু নির্বাচন হলে রাজবাড়ী-১ আসন পুনরুদ্ধার করতে সক্ষম হবো : অ্যাড. খালেক রাজবাড়ী-১ আসনে বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থী অ্যাড. আসলাম মিয়ার গণসংযোগ রাজবাড়ী-১ আসনের জন্য আ’লীগের মনোনয়ন ফরম নিলেন ইমদাদুল হক বিশ্বাস রাজবাড়ীতে যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন রাজবাড়ীতে এসএসসি পরীক্ষার্থীকে কুপিয়ে জখম রাজবাড়ী-১ আসনের জন্য আ’লীগের মনোনয়ন ফরম নিলেন আশরাফুল ইসলাম রাজবাড়ী-১ আসনের জন্য জাতীয় পার্টির মনোনয়ন ফরম নিলেন মিল্টন প্রত্যেকটি মানুষের ঘরে শান্তি পৌঁছে দেওয়া হবে : রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার রাজবাড়ীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ চরমপন্থি নেতা নিহত রাজবাড়ীতে বিএনপি’র ২৭ নেতাকর্মী কারাগারে

বালিয়াকান্দিতে সরকারী জমি থেকে অবৈধভাবে মেহগনি গাছ কর্তন

News

বালিয়াকান্দি : রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলায় খালেক মোল্লা (৭২) নামে এক অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে সরকারী জমি থেকে অবৈধভাবে একটি মেহগনি গাছ কর্তনের অভিযোগ উঠেছে।

শুক্রবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সকালে উপজেলার সদর ইউনিয়নের জাবোরকোল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

খালেক মোল্লা জাবোরকোল গ্রামের মৃত মোজাহার মোল্লার ছেলে। তিনি বালিয়াকান্দি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক ছিলেন।

সরকারী জমি থেকে গাছ কাটার খবর পেয়ে বালিয়াকান্দি থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে গাছটি জব্দ করে এবংউপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) অনুমতি পত্র নিয়ে না আসা পর্যন্ত ব্যবহার করতে পারবেন না বলে সেই স্থানেই রেখে আসে।

এ বিষয়ে স্কুল শিক্ষক থালেক মোল্লা বলেন,  আমি চল্লিশ বছর ধরে ৯৭ শতাংশ জমি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কাছ থেকে ডিসিআরের মাধ্যমে  লিজ নিয়ে ভোগদখল করে আসছি। ইউএনও’র কাছ থেকে অনুমতি নিয়ে আমি সকালে ওই জমি থেকে একটি মেহগনি  গাছ কেটেছি।

গাছ কাটার ব্যাপারে ইউএনওকি আপনাকে কোনো লিখিত অনুমতি দিয়েছেন? এমন প্রশ্নে খালেক মোল্লা বলেন, না ইউএনও সাহেব আমাকে মৌখিক অনুমতি দিয়েছেন।

এদিকে, খালেক মোল্লাকে গাছ কাটার মৌখিক অনুমতি দেওয়ার কথা অস্বীকার করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এইচএম রকিব হায়দার বলেন, গাছ কাটার অনুমতি দেওয়ার এখতিয়ার আমার নেই, আমি কোনো অনুমতি দেইনি।

বালিয়াকান্দি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাসিনা বেগম বলেন, এটি আমাদের বিষয় নয়। এটি উপজেলা প্রশাসন ও বনবিভাগের বিষয়। তারপরেও আমি সরকারী জমিতে  গাছ কাটার খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে গাছটি জব্দ করি।উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) অনুমতি পত্র নিয়ে না আসা পর্যন্ত খালেক মোল্লা গাছটি ব্যবহার করতে পারবেন না।

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর