,

রাজবাড়ীতে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অনৈতিক কর্মকাণ্ডের অভিযোগ

ফকীর আশিকুর রহমান, নিউজরুম এডিটর॥ রাজবাড়ী সদর উপজেলার বসন্তপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সমীর সরকারের বিরুদ্ধে অনৈতিক কর্মকাণ্ডের অভিযোগ উঠেছে।

এ অভিযোগে বুধবার (২০ সেপ্টেম্বর) বিদ্যালয়টির শিক্ষার্থীদের অভিভাবক ও স্থানীয় সচেতন নাগরিকবৃন্দ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সৈয়দা নুরমহল আশরাফীর কাছে লিখিত দরখাস্ত দিয়েছেন।

লিখিত অভিযোগে বলা হয়েছে, বসন্তপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সমীর সরকার একজন দুশ্চরিত্রবান ব্যক্তি। সম্প্রতি এক মেয়ের সঙ্গে তার মোবাইল ফোনে যৌন হয়রানি ও যৌন উত্তেজনামূলক কথাবার্তার রেকর্ডিং ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়েছে। ওই রেকর্ডিং নিয়ে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যকর পরিস্থিতি ও ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া, সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে সমীর সরকার স্কুল ছুটির পর স্কুলের চতুর্থ ও পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের কোচিং করান। বিনিময়ে প্রতিমাসে প্রত্যেক শিক্ষার্থীর কাছ থেকে তিনি ৩০০ টাকা করে নেন।

লিখিত অভিযোগে বসন্তপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার পরিবেশ সুষ্ঠু ও সুন্দর করার লক্ষ্যে প্রধান শিক্ষক সমীর সরকারের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থার দাবি জানানো হয়।

এদিকে, ইন্টারনেটে ভাইরাল হওয়া সমীর সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগের  রেকর্ডিংটি ‘রাজবাড়ী নিউজ২৪.কম’-এর  হাতেও এসেছে। ওই রেকর্ডিংয়ে শোনা যায়, অন্যান্য কথাবার্তার এক পর্যায়ে মেয়ে কন্ঠ থেকে পুরুষ কন্ঠের ব্যক্তিকে বলা হয়- ‘স্যার আমি যখন ক্লাস ফাইভে পড়তাম তখন আপনি আমার সঙ্গে কতকিছু করতেন, আপনার মনে পড়ে ? প্রতিউত্তরে পুরুষ কন্ঠের ব্যক্তি বলেন, হ্যাঁ আমার সবই মনে আছে। কতোকিছু করেছি তোর সঙ্গে। তুই আসিস না কেনো সোনা ?’

এসব কথার এক পর্যায়ে ওই মেয়ের সঙ্গে কবে-কোথায় যৌন সম্পর্ক করা যাবে এসব নিয়েও আলোচনা করেন পুরুষ কন্ঠের ব্যক্তিটি।

বসন্তপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কয়েকজন নেতাসহ এলাকার একাধিক গণ্যমান্য ব্যক্তি ওই রেকর্ডিংয়ের পুরুষ কন্ঠটি শিক্ষক সমীর সরকারের বলে ‘রাজবাড়ী নিউজ২৪.কম’-কে নিশ্চিত করেছেন। তবে মেয়ের কন্ঠটি বসন্তপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রাক্তন এক ছাত্রীর বলে ধারণা করছেন তারা।

বসন্তপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সাবেক সভাপতি আবু বক্কর ছিদ্দিক ও বসন্তপুর ইউনিয়ন কমিউনিটি পুলিশিংয়ের সভাতি মো. জালাল উদ্দিন ‘রাজবাড়ী নিউজ২৪.কম’-কে বলেন, প্রধান শিক্ষক সমীর সরকারের বিরুদ্ধে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অভিভাবক, বিভিন্ন সংগঠনের কর্তাব্যক্তি ও সচেতন নাগরিকবৃন্দসহ ৩০ জনের স্বাক্ষরিত একটি লিখিত অভিযোগপত্র উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে দেওয়া হয়েছে। অভিযোগ দেওয়ার পর সমীর সরকার নিজের সকল দোষ স্বীকার করে আমাদেরকে ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার অনুরোধ করেছেন। কিন্তু আমরা তা করবো না। আমাদের সন্তানদের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে এই দুশ্চরিত্রবান শিক্ষককে আমরা স্কুল থেকে বিতারিত করবো।

এ বিষয়ে রাজবাড়ী সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সৈয়দা নূরমহল আশরাফী ‘রাজবাড়ী নিউজ২৪.কম’-কে  বলেন, বসন্তপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সমীর সরকারের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করার জন্য উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এদিকে, নিজের ওপর আনা অভিযোগটি মিথ্যা দাবি করে শিক্ষক সমীর সরকার ‘রাজবাড়ী নিউজ২৪.কম’-কে  বলেন, ইন্টারনেটে ভাইরাল হওয়া রেকর্ডিংটি প্রযুক্তির মাধ্যমে বানানো হয়েছে। একটি কুচক্রী মহল আমাকে হেয় করার জন্য এ কাজটি করেছে। আমি তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিবো।

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর