,

এসআই পরিচয়ে অর্ধডজন বিয়ে, অতঃপর…

News

স্টাফ রিপোর্টার : ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ডিবির এসআই পরিচয় দিয়ে অর্ধডজন বিয়ে করেছেন বিএম জাহিদুল ইসলাম জিল্লু (৩৬) নামে এক প্রতারক। অবশেষে এক স্ত্রীর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) হাতে ধরা পড়েছেন তিনি।

শনিবার (২৫ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে রাজবাড়ী জেলা সদরের বসন্তপুর ইউনিয়নের মহারাজপুর গ্রামের শ্বশুরবাড়ি থেকে তাকে আটক করা হয়।

জিল্লু রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার মাজবাড়ী ইউনিয়নের মোহনপুর গ্রামের মো. মোশারফ হোসেনের ছেলে।

র‌্যাব-৮ ফরিদপুর ক্যাম্পের দুই নম্বর কোম্পানির অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রইছ উদ্দিন জানান, জিল্লু নিজেকে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ডিবির ছয় নম্বর টিমের উপ পরিদর্শক (এসআই) হিসেবে পরিচয় দিতেন। এ পরিচয় ধারন করে তিনি বিভিন্ন সময় প্রতারণামূলকভাবে প্রায় অর্ধডজন বিয়ে করেন। একইভাবে তিনি এসআই পরিচয় দিয়ে চলতি বছরের ১৪ জুন রাজবাড়ী জেলা সদরের বসন্তপুর ইউনিয়নের মহারাজপুর গ্রামের খলিল শেখের মেয়ে ও প্রাইমারী স্কুলের সহকারী শিক্ষক রেহেনা পারভীনকে (৩২) বিয়ে করেন। বিয়ের পর বিভিন্ন সময়ে তিনি এসআই থেকে নিজের পদোন্নতির কথা বলে ছয় লাখ এবং রেহেনার ভাইকে ব্যাংকে চাকরি দেওয়ার কথা বলে দুই লাখ টাকা হাতিয়ে নেন।

এতো টাকা দেওয়ার পরেও জিল্লুর পদোন্নতি না হওয়ায় এবং রেহেনার ভাইকে ব্যাংকে চাকরি দিতে না পারায় জিল্লুর পুলিশ পরিচয় নিয়ে রেহেনার মনে সন্দেহ হয়। এরপর রেহেনা বিষয়টি র‌্যাবকে জানান। পরে শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে রেহেনার বাবার বাড়ি থেকে জিল্লুকে আটক করে র‌্যাব।

র‌্যাবের অধিনায়ক মো. রইছ উদ্দিন আরও জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জিল্লু তার ভুয়া এসআই পরিচয় ও বিভিন্ন স্থানে প্রতারণার কথা স্বীকার করেছেন।

এ ঘটনায় জিল্লুর স্ত্রী রেহানা পারভীন বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে রাজবাড়ী সদর থানায় একটি প্রতারণা মামলা দায়ের করেছেন।

রাজবাড়ী নিউজ২৪.কম/ আশিক

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর