,

স্বল্প খরচে ‘প্যাকেট হাউজ’ দিচ্ছে জীপ কমিউনিকেশন

News

স্টাফ রিপোর্টার॥  আধুনিক ডিজাইন, উন্নত প্রযুক্তি, পরিবেশ বান্ধব ও দুর্যোগ মোকাবেলায় প্রস্তত, স্বল্পসময়ে এবং স্বল্প খরচে মনের মত বাড়ি নিয়ে এসেছে ‘জীপ কমিউনিকেশন’ নামে একটি নির্মাণ প্রতিষ্ঠান।

শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় রাজবাড়ী জেলা সদরের বরাট ইউনিয়নের উড়াকান্দা বাজার সংলগ্ন মাঠে প্রতিষ্ঠানটির যাত্রা শুরু হয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজবাড়ী সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব অ্যাডভোকেট এম.এ খালেক।

এ সময় জিপ কমিউনিকেশনের চেয়ারম্যান লালন শেখ, হেড অব বিজনেস মো. আজিজুল হক, আর্কিটেকচার ইঞ্জিনিয়ার মো. মাহাদি হাসান, রাজবাড়ী জেলার প্রথম অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘রাজবাড়ী নিউজ২৪.কম’-এর সম্পাদক এম.এ খালেদ পাভেল, উড়াকান্দা বাজার কমিটির সভাপতি শামসুল আলম বাবু, জীপ কমিউনিকেশনের চেয়ারম্যান মো. লালন শেখের মাতা জহিরুন্নেচ্ছা বেগম, প্রোজেক্ট ডিরেক্টর মো. মাইনুদ্দিন সেখসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

জীপ কমিউনিকেশনের চেয়ারম্যান লালন শেখ জানান, সমাজের বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষের সাধ ও সাধ্যের মধ্যে বাড়ি তৈরীর এক নতুন অধ্যায় নিয়ে এসেছে জীম কমিউনিকেশন। উন্নত বিশ্বের ন্যায় বহুল ব্যবহৃত আধুনিক স্টিলের নতুনত্তের ছোয়ায় নির্মাণ হবে স্বপ্নের বাড়ি। ইট, বালু, সিমেন্টের ব্যবহার ছাড়াই সম্পূর্ণ ঝামেলা মুক্ত পরিবেশ বান্ধব ও দূর্যোগ মোকাবেলায় প্রস্তুত এই স্টিলের বাড়ি। এটি দীর্ঘস্থায়ী ও স্বল্প সময়ে অল্প খরচে মানের মত বাড়ি। এই বাড়িটি গ্রাহকেরা পাবেন সম্পূর্ণ ব্যবহার উপযোগী প্যাকেট হাউজ হিসেবে। জীপ কমিউনিকেশন মাত্র তিন ঘন্টায় স্টিলের ঘরসহ একটি সুন্দর বাড়ি তেরী করতে সক্ষম, যা গ্রাহককে চিন্তামূক্ত জীবন যাপনের নিশ্চয়তা প্রদান করবে। এছাড়াও জীপ কমিউনিকেশন এর প্যাকেট হাউজ স্টিলের বাড়ি নির্মাণে দিচ্ছে ১০০ বছরের গ্যারান্টি ও ওয়ারেন্টি এবং ১০০ বছরের সার্ভিসিং সুযোগ। সেই সাথে দিবে ডিজাইন, কাঠামোগত ও রংয়ের পরিবর্তন এবং আরো অনান্য সুযোগ সুবিধা।

এছাড়াও স্টিল দিয়ে নতুন এই প্যাকেট হাউজ বাড়ি সহজে নির্মাণ ও বহনযোগ্য হওয়ায় নদী ভাঙ্গণ এলাকার মানুষ নদী ভাঙ্গনের কবল থেকে অন্তত তাদের বাড়ি ঘর বাঁচাতে পারবে। সেই সাথে এই বাড়িটি ভূমিকম্পে থাকবে সহনশীল।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব অ্যাডভোকেট এম.এ খালেক বলেন, স্টিল দিয়ে নতুন এই প্যাকেট হাউজ বাড়ি সহজে নির্মাণ ও বহনযোগ্য হওয়ায় রাজবাড়ী জেলার নদী ভাঙ্গণ এলাকার মানুষ নদী ভাঙ্গনের কবল থেকে অন্তত তাদের বাড়িঘর বাঁচাতে পারবে। তাছাড়া নিম্ন ও মধ্যবিত্ত মানুষেরা তাদের সাধ্যের মধ্যেই কাঙ্খিত স্বপ্নের বাড়ি নির্মাণ করতে পারবে। যা রাজবাড়ীসহ দেশের বিভিন্ন জেলার মানুষের জন্য শুভ ও কল্যাণকর।

পরে জীপ কমিউনিকেশনের তৈরী নব নির্মিত একটি বড়ি প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান মো. লালন শেখ তার মায়ের নামে প্রতিষ্ঠিত উড়াকান্দা রাধাকান্তপুর জহিরুনেচ্ছা মাদ্রাসায় দান করেন।

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর