,

সর্বশেষ :
রাজবাড়ী-১ আসনের জন্য বিএনপির মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন অ্যাড. খালেক ও আসলাম সুষ্ঠু নির্বাচন হলে রাজবাড়ী-১ আসন পুনরুদ্ধার করতে সক্ষম হবো : অ্যাড. খালেক রাজবাড়ী-১ আসনে বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থী অ্যাড. আসলাম মিয়ার গণসংযোগ রাজবাড়ী-১ আসনের জন্য আ’লীগের মনোনয়ন ফরম নিলেন ইমদাদুল হক বিশ্বাস রাজবাড়ীতে যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন রাজবাড়ীতে এসএসসি পরীক্ষার্থীকে কুপিয়ে জখম রাজবাড়ী-১ আসনের জন্য আ’লীগের মনোনয়ন ফরম নিলেন আশরাফুল ইসলাম রাজবাড়ী-১ আসনের জন্য জাতীয় পার্টির মনোনয়ন ফরম নিলেন মিল্টন প্রত্যেকটি মানুষের ঘরে শান্তি পৌঁছে দেওয়া হবে : রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার রাজবাড়ীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ চরমপন্থি নেতা নিহত

খালেদার কারাদণ্ডের প্রতিবাদে রাজবাড়ীতে বিএনপির বিক্ষোভ

News

রাজবাড়ী : বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার পাঁচ বছরের কারাদণ্ডের প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে রাজবাড়ীতে বিক্ষোভ করেছেন দলটির নেতাকর্মীরা।

শুক্রবার (৯ ফেব্রুয়ারি) জুমার নামাজের পর জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট এম.এ খালেকের চেম্বার প্রাঙ্গন থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করতে গেলে পুলিশের বাধার মুখে পড়েন নেতাকর্মীরা। পরে সেখানেই সংক্ষিপ্ত বিক্ষোভ সভা করা হয়।

এতে জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট এম.এ খালেকে ও সাধারণ সম্পাদক হারুন-অর-রশিদ বক্তব্য দেন।

এ সময় জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি গোলাম শওকত সিরাজ, লুৎফর রহমান খান, জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম পিন্টু, জেলা বিএনপির সদস্য ও যুক্তরাজ্য ছাত্রদলের সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি এম.এ খালেদ পাভেলসহ জেলা বিএনপি এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট এম.এ খালেক তার বক্তব্যে বলেন, রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার হীন উদ্দেশে সরকার বিএনপির চেয়ারপারসন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও ২০ দলীয় জোটনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কথিত জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টের মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক মামলায় ৫ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত করেছে। তাকে নির্বাচন থেকে বাইরে রাখতেই এ দণ্ড দেয়া হয়েছে।

 এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অ্যাডভোকেট এম.এ খালেক বলেন, সরকার রাজনৈতিক উদ্দেশে আদালতকে ব্যবহার করার যে অপকৌশল গ্রহণ করেছে; এ রায় তারই ধারাবাহিকতা মাত্র। এ রায় জনগণের কাছে গ্রহণযোগ্য নয়।

তিনি বলেন, সরকার ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি ভোটারবিহীন প্রহসনের নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতা দখল করে জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। দেশের জনগণকে সরকার মারাত্মকভাবে ভয় পায়। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে যাতে জনমতের প্রতিফলন ঘটতে না পারে সে জন্য সরকার বিরোধী দলের রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দকে জাতীয় নির্বাচনের বাইরে রাখার অপকৌশল গ্রহণ করেছে।

তিনি বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াসহ আটককৃত দলীয় সকল নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে দায়ের করা সব মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করে তাদের নিঃশর্তভাবে মুক্তি প্রদান এবং নিরপেক্ষ কেয়ারটেকার সরকারের অধীনে সব দলের অংশগ্রহণে একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের পদক্ষেপ গ্রহণ করে দেশকে বর্তমান শ্বাসরুদ্ধকর পরিস্থিতি থেকে উদ্ধার করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানান।

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর