,

সর্বশেষ :
রাজবাড়ীতে ড্রেজার চালককে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানোর অভিযোগ রাজবাড়ীতে ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার রাজবাড়ীতে সোনালী অতীত ক্লাবেরর ঈদ পুনর্মিলনী ও প্রীতি ভলিবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত ঢাকাস্থ খানখানাপুর সমিতির উদ্যোগে গুণীজন ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা প্রদান রাজবাড়ীর বসন্তপুরের মাদক ব্যবসায়ী ছবদুল র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার ‌’মানবতার জয়’ এর উদ্যোগে হতদরিদ্রদের মধ্যে ঈদ খাদ্য সামগ্রী বিতরণ রাজবাড়ীর মুলঘরের আদর্শ রাজনীতিবিদ রইস উদ্দিন মিয়া আর নেই দৌলতদিয়ায় এক মাদক ব্যবসায়ী ও চার মাদকসেবী আটক রাজবাড়ীর বসন্তপুর ইউনিয়নে ভাতা ভোগীদের বই বিতরণ অ্যাডভোকেট সুদীপ্ত গুহ ও সিএসআই তাজ উদ্দিনের দ্বন্দ্বের অবসান

পাগলীর সন্তানকে কোলে তুলে নিলেন মমতাময়ী পুলিশ সুপার মিলি!

News

বালিয়াকান্দি : রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে একটি ছেলে সন্তান প্রসব করেছেন এক পাগলী। এ খবর শুনে স্থির থাকতে পারেননি জেলার নবাগত পুলিশ সুপার আসমা সিদ্দিকা মিলি (বিপিএম-সেবা)। ওই পাগলী ও তার সদ্যজাত সন্তানকে দেখার জন্য হাসপাতালে ছুটে যান পুলিশ সুপার। সেখানে গিয়ে তিনি পরম মমতায় কোলে তুলে আদর করেন শিশুটিকে।

বৃহস্পতিবার (০৮ মার্চ) বিকেলে উপজেলার নারুয়া গ্রামের রুপালী বেগম নামে এক গৃহবধূ ওই পাগলীকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। এর পরপরই একটি ফুটফুটে ছেলে সন্তান প্রসব করেন পাগলীটি। এ খবর শুনে শুক্রবার (০৯ মার্চ) দুপুরে পাগলী ও তার সন্তানকে দেখতে হাসপাতালে ছুটে যান পুলিশ সুপার আসমা সিদ্দিকা মিলি।

এ সময় রাজবাড়ীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ রাকিব খান, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (পাংশা সার্কেল) ফজলুল করিম, বালিয়াকান্দি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাসিনা বেগম উপস্থিত ছিলেন।

পাগলীকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা গৃহবধূ রুপালী বেগম বলেন, ‘ওই পাগলী বলেছেন তার নাম শাবনুর (২০)। তিনি নাকি নওগাঁ জেলার আত্রাই উপজেলার দিঘীর হাট গ্রামের শাহীনের স্ত্রী। প্রায় দেড় মাস ধরে তিনি নারুয়ার মধুপুর তিন রাস্তার মোড়ের একটি পরিত্যক্ত ঘরে থাকতেন এবং প্রায়ই আমার বাড়িতে আসতেন। গর্ভবতী দেখে আমি তাকে খেতে দিতাম।’

পাগলীকে খেতে দেয়ার কারণ জানতে চাইলে রুপালী বেগম বলেন, ‘আমার একটি বিবাহিতা মেয়ে আছে। তার কোনো সন্তান হয় না। সে কারণেই আমি পাগলীকে খেতে দিতাম, যাতে বাচ্চা হলে আমি নিয়ে মেয়েকে দিতে পারি।’

এদিকে, এ প্রতিবেদকের সামনে পাগলীর সন্তানকে রুপালী বেগম নিয়ে যাওয়ার কথা বললে পাগলী প্রকাশ করেন- ‘আমার বাচ্চা আমি কাউকে দিবোনা। এ কথা বলেই তিনি বাচ্চাটিকে জড়িয়ে ধরেন।’

পুলিশ সুপার আসমা সিদ্দিকা মিলি বলেন, ‘পাগলী ও তার সদ্যজাত সন্তানের সু-চিকিৎসা নিশ্চিত করা হয়েছে। তাদের সঠিক পরিচয় উদঘাটন ও সুব্যবস্থা না হওয়া পর্যন্ত তারা পুলিশি পাহারায় থাকবেন।’

রাজবাড়ী নিউজ২৪.কম/ আশিক

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর