,

পাংশায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ চরমপন্থি নিহত

News

পাংশা : রাজবাড়ী জেলার পাংশা উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। পুলিশের দাবি, বন্দুকযুদ্ধে মৃত যুবক পূর্ববাংলা কমিউনিস্ট পার্টির লাল পতাকা বাহিনীর সেকেন্ড-ইন কমান্ড।

বৃহস্পতিবার (২৬ জুলাই) গভীর রাতে উপজেলার হাবাসপুর এলাকায় এই বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

মৃত লালন হালদার (৪০) পাবনা জেলার সুজানগর উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রামের মৃত জীতেন হালদারের ছেলে।

রাজবাড়ী সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (পাংশা সার্কেল) মো. ফজলুল করিম জানান, বৃহস্পতিবার রাতে চরমপন্থি লালন ও তার দলের অন্য সদস্যরা পাংশা উপজেলার পদ্মা নদীর তীরে গোপন বৈঠক করছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ সেখানে পৌঁছালে চরমপন্থি দলের সদস্যরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে। এ সময় লালন গুলিবিদ্ধ হয়। তাকে উদ্ধার করে পাংশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি আরও জানান, ঘটনাস্থল থেকে একটি একনালা বন্দুক ও একটি ওয়ান শুটারগান ও ছয় রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। মৃত লালনের নামে থানায় একাধিক মামলা রয়েছে বলে জানান তিনি।

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর