,

রাজবাড়ীতে শিশু সন্তানদের সামনে মা’কে গলাকেটে হত্যা!

News
নিহত আদুরী বেগম।

রাজবাড়ী : রাজবাড়ী সদর উপজেলার বানীবহ ইউনিয়নের আটদাপুনিয়া গ্রামে নিজ বসতঘরে দুই শিশু সন্তানের সামনে আদুরী বেগম (২৫) নামে এক গৃহবধূকে গলাকেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

মঙ্গলবার (৭ আগস্ট) দিনগত রাতে এ হত্যাকান্ড ঘটে। আদুরী আটদাপুনিয়া গ্রামের রডমিস্ত্রী মিজানুর রহমান মৃধার স্ত্রী।

আদুরীর শ্বশুর করিম মৃধা জানান, দুই মাস আগে তার ছেলে মিজানুর কক্সবাজারের উখিয়ায় রড মিস্ত্রির কাজে গেছে। ছেলের বউ আদুরী দুই শিশু ছেলে সন্তানকে নিয়ে একটি পাটকাঠির ঘরে থাকতো। মঙ্গলবার রাতে আদুরী তার দুই ছেলেকে নিয়ে রাতের খাবার খেয়ে ঘরে শুয়ে পড়ে। রাত ১ টার দিকে তিনি (করিম মৃধা) প্রকৃতির ডাকে বাইরে বের হয়ে নাতির কান্নার শব্দ শুনে আদুরীর ঘরের সামনে যান। সেখানে গিয়ে দেখেন ঘরের দরজা খোলা এবং ভেতরে লাইট বন্ধ। এরপর ঘরের ভেতরে গিয়ে দেখেন আদুরী গলাকাটা অবস্থায় বিছানায় পড়ে রয়েছে। নাতি দু’টির শরীরে তাদের মায়ের রক্ত লেগে আছে। পড়ে তিনি বিষয়টি স্থানীয় জনপ্রতিনিধিকে জানান।

এ হত্যাকান্ড কারা ঘটিয়ে থাকতে পারে তা ধারণা করতে পারছেন না বলে জানিয়েছেন আদুরীর শ্বশুর করিম মৃধা।

রাজবাড়ী সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) বদিয়ার রহমান জানান, খবর পেয়ে পুলিশ রাতেই ঘটনাস্থলে পৌঁছে। সুরতহাল রিপোর্ট শেষে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়েছে এবং জড়িতদের সনাক্ত করে গ্রেফতারে পুলিশ মাঠে নেমেছে।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি রাজবাড়ীতে হত্যাকান্ডের ঘটনা আশঙ্কাজনকহারে বেড়ে গেছে বলে অভিযোগ করেছেন সচেতনমহল। গত ৩ আগস্ট সদর উপজেলার মুলঘর ইউনিয়নের পশ্চিম মুলঘর গ্রামে নিজ বসতঘর থেকে দাদি ও নাতনির গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ওই হত্যাকান্ডের ঘটনায় আজ্ঞাত আসামি করে থানায় মামলা দায়ের হলেও পাঁচ দিনেও হত্যার রহস্য উদঘাটন বা হত্যাকারীদের সনাক্ত করতে পারেনি পুলিশ। ওই হত্যাকান্ডের রেষ কাটতে না কাটতেই একইভাবে আজ আরও একটি হত্যার ঘটনা ঘটলো। এতে জনমনে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে।

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর