,

সর্বশেষ :
অর্থনীতিতে এমনটা এর আগে কখনো হয়নি সাবেক সচিব ও ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার রাজবাড়ীর কৃতি সন্তান বজলুল করিম ও তার স্ত্রী করোনায় আক্রান্ত রাতের আঁধারে দরিদ্রদের বাড়ি বাড়ি ঈদ সামগ্রী পৌঁছে দিলো ‘মানব কল্যাণ ফাউন্ডেশন’ মন্দিরের সামনে গাঁজা খেতে নিষেধ করায় প্রতিমা ভাংচুর বড় ধরণের করোনা ঝুঁকিতে রাজবাড়ী বালিয়াকান্দির নবাবপুর ইউনিয়নের ১১০০ হতদরিদ্র পরিবারের মধ্যে সরকারি ত্রাণ বিতরণ বসন্তপুর ইউনিয়নের ৮০০ হতদরিদ্র পরিবারের মধ্যে সরকারি ত্রাণ বিতরণ হতদরিদ্রদের বাড়ি বাড়ি ঈদের খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিলেন প্রবাসীরা করোনা উপসর্গ নিয়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু, দুই বাড়ি লকডাউন করলেন এসিল্যান্ড রাজবাড়ীর করোনা যোদ্ধা চিকিৎসকদের N95 মাস্ক দিলেন সাবেক জেলা জজ

রাজবাড়ীতে তামাকে ছড়াচ্ছে বিষ, উর্বরতা হারাচ্ছে ফসলি জমি

News

রাজবাড়ী : অল্প খরচে অধিক লাভ হওয়ায় তামাক চাষের দিকে ঝুকছেন রাজবাড়ীর কৃষকরা। রাজবাড়ী সদর উপজেলাসহ বালিয়াকান্দি, কালুখালী, গোয়ালন্দ ও পাংশা এই পাঁচ উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় দিন দিন তামাক চাষে আগ্রহী কৃষকের পরিমাণ বাড়ছে। অধিক লাভ ও বিভিন্ন কোম্পানি কৃষকদের প্রলোভন দেখিয়ে তামাক চাষে আগ্রহী করে তুলছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এমনকি তামাক চাষের জন্য কোম্পানিগুলোর কাছ থেকে বিভিন্ন ধরনের প্রণোদনার পাশাপাশি অধিক লাভের আশায় কৃষকেরা তামাক চাষ করছেন।

সদর উপজেলার মিজানপুর ইউনিয়নের ধাওয়াপাড়া গ্রামের তামাক চাষী মুক্তার সরদার জানান, তিনি এ বছর ৪ বিঘা জমিতে তামাক চাষ করেছেন। তামাক চাষের জন্য তিনি ব্রিটিশ টোবাকো কোম্পানি কাছে থেকে অগ্রিম মোটা অংকের টাকা, সার-বীজসহ বিভিন্ন সহায়তা পেয়েছেন।’ অধিক লাভের কারণে ফসলি জমিতে তামাক চাষ করেছেন বলেও জানান মুক্তার সরদার। তিনি আরও জানান, অন্যান্য ফসলের চাইতে তামাক চাষে কয়েকগুণ লাভ পাওয়ায় তিনি দিন দিন তামাক চাষের পরিমাণ বাড়াচ্ছেন। এছাড়া প্রতিবছরই তামাক চাষ করবেন বলেও মন্তব্য করেন মুক্তার সরদার।

তামাক চাষ, পরিচর্যা ও সংগ্রহ করতে গিয়ে মারাত্মক স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পড়ছেন কৃষকরা।

এদিকে, তামাক চাষে কৃষকদের নিরুৎসাহিত করতে পরামর্শ প্রদান করে যাচ্ছে জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর। এ বিষয়ে রাজবাড়ী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোঃ ফজলুর রহমান বলেন, ‘তামাক চাষে চাষীরা বিভিন্ন কোম্পানির কাছ থেকে সহায়তা পাওয়ার কারণেই মূলত তামাক চাষ করছেন। তবে, কৃষকদের অন্যান্য লাভজনক ফসল চাষের পরামর্শ দেয়া হয় বলেও জানান তিনি। আর, জেলা প্রশাসক মোঃ শওকত আলী জানান, ক্ষতিকারক তামাক চাষ কমাতে সমন্বিত উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

অন্যদিকে, তামাক চাষের কারণে ফসলি জমি তার উর্বরতা শক্তি হারাচ্ছে। এ বছর রাজবাড়ী জেলায় তামাকের আবাদ হয়েছে ৩১ হেক্টরের কিছু বেশি যা গত বছরের তুলনায় ২ হেক্টর কম। সূত্র- ডিবিসি নিউজ।

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর