,

সর্বশেষ :
ঢাকাস্থ খানখানাপুর সমিতির উদ্যোগে গুণীজন ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা প্রদান রাজবাড়ীর বসন্তপুরের মাদক ব্যবসায়ী ছবদুল র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার ‌’মানবতার জয়’ এর উদ্যোগে হতদরিদ্রদের মধ্যে ঈদ খাদ্য সামগ্রী বিতরণ রাজবাড়ীর মুলঘরের আদর্শ রাজনীতিবিদ রইস উদ্দিন মিয়া আর নেই দৌলতদিয়ায় এক মাদক ব্যবসায়ী ও চার মাদকসেবী আটক রাজবাড়ীর বসন্তপুর ইউনিয়নে ভাতা ভোগীদের বই বিতরণ অ্যাডভোকেট সুদীপ্ত গুহ ও সিএসআই তাজ উদ্দিনের দ্বন্দ্বের অবসান যুবকের দুই হাত বিচ্ছিন্ন করার ঘটনায় গ্রেফতার ১, চাপাতি উদ্ধার কবিরাজ’ই চিকিৎসক; বিশ্বাসকে পুঁজি করে দিনের পর দিন ধরে চলছে অপচিকিৎসা রাজবাড়ীর বসন্তপুরে ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী মতিয়ার গ্রেফতার

যুবকের দুই হাত বিচ্ছিন্ন করার ঘটনায় গ্রেফতার ১, চাপাতি উদ্ধার

News

রাজবাড়ী : রাজবাড়ী সদর উপজেলার কল্যাণপুর গ্রামে শাহিন খান (২৫) নামে এক যুবকের দুই হাত কেটে বিচ্ছিন্ন করার ঘটনায় হত্যাচেষ্টা মামলা হয়েছে।

সোমবার (০৫ আগস্ট) দুপুরে শাহিন খানের বাবা মো. হাসেম খান বাদী হয়ে পাঁচজনের নাম উল্লেখসহ তিন-চারজনকে অজ্ঞাত আসামি করে সদর থানায় এ মামলা দায়ের করেন। এরই মধ্যে মামলার তিন নম্বর আসামি শাহিন রাঢ়ীকে (২৮) গ্রেফতার এবং তার দেওয়া তথ্যমতে তিনটি রক্তমাখা ধারালো চাপাতি উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মামলার আসামিরা হলো- কল্যাণপুর গ্রামের রহমান গাজীর ছেলে ইসমাইল গাজী (৩২), মৃত মান্নান পাটোয়ারীর ছেলে ইদ্রিস পাটোয়ারী (২৮), জাফর রাঢ়ীর ছেলে শাহিন রাঢ়ী (২৮), আমিন হক রাঢ়ীর ছেলে লালু (৩০) ও সুরুজ লাঠিয়ালের ছেলে শাহ আলম (২৮) এবং অজ্ঞাত ৩-৪ জন।

মামলার বিবরণ থেকে জানা যায়, রোববার (০৪ আগস্ট) বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে শাহিন খানকে মোবাইল ফোনে বাড়ি থেকে ডেকে কল্যাণপুর কবরস্থান সংলগ্ন বালুর মাঠের পশ্চিম পাশে নিয়ে যায় মামলার আসামিরা। এ সময় ধারালো চাপাতি দিয়ে শাহিনকে হত্যার চেষ্টা করে তারা। শাহিন দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করলে চাপাতি দিয়ে কোপাতে শুরু করে মামলার এক নম্বর আসামি ইসমাইল। এতে শাহিন মাটিতে পড়ে যায়। তখন শাহিনের হাত-পা ও মুখ চেপে ধরে মাঠের পূর্ব পাশে নিয়ে জবাইয়ের চেষ্টা করা হয়। এ সময় শাহিন দুই হাত দিয়ে ঠেকানোর চেষ্টা করলে দুই হাত কেটে শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলে তারা। শাহিনের চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে পালিয়ে যায় আসামিরা।

এরপর গুরুতর অবস্থায় শাহিনকে প্রথমে রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল, পরে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং সেখানে অবস্থার অবনতি হলে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়। বর্তমানে তিনি পঙ্গু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় কয়েকজন ব্যক্তি সারাবাংলাকে জানান, শাহিন ও ইসমাইল একসঙ্গে মাদক বিক্রি করতো। মাদক বিক্রির টাকা ভাগাভাগি নিয়ে মাসখানেক আগে তাদের মধ্যে মারামারি হয়। পরে স্থানীয়ভাবে শালিসের মাধ্যমে তা সমাধান হয়। এছাড়া শাহিনের স্ত্রীকে ইসমাইল মাঝে মধ্যেই মোবাইলে বিরক্ত করতো। এ কারণে শাহিন ইসমাইলকে একবার মারধর করেছিল। সেই প্রতিশোধ নিতেই ইসমাইল তার দলবল নিয়ে শাহিনের হাত কেটে ফেলেছে।

রাজবাড়ী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) স্বপন কুমার মজুমদার বলেন, শাহিনের হাত বিচ্ছিন্ন করার ঘটনায় মামলা হয়েছে। রোববার দিনগত রাতে রাজবাড়ী সদর উপজেলা পাঁচুরিয়া এলাকা থেকে মামলার তিন নম্বর আসামি শাহিন রাঢ়ীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার দেওয়া তথ্যমতে সোমবার বিকেলে শাহিনের হাত কাটার ঘটনাস্থলের আনুমানিক ৩শ’ গজ দূরে আব্বাস গাজীর হলুদ ক্ষেত থেকে একটি ব্যাগের মধ্যে রাখা রক্তমাখা তিনটি চাপাতি উদ্ধার করা হয়েছে। এ মামলার অন্য আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও জানান ওসি।

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর