,

সর্বশেষ :
খাদ্য সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত রেখেছে ‘মানবিক রাজবাড়ী’ রাজবাড়ীতে সরকারি নির্দেশনা না মানায় ৩ দোকানিকে জরিমানা খানখানাপুরকে করোনামুক্ত রাখতে নিরলস পরিশ্রম করছেন বশির ও ফরহাদ রাজবাড়ীতে অসহায় মানুষের মধ্যে খিচুরি বিতরণ পাংশায় সেই যুবকের শরীরে করোনা পাওয়া যায়নি রাজবাড়ীতে আরও কঠোর হচ্ছে প্রশাসন রাতের আধাঁরে দরিদ্রদের ঘরে ঘরে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিলো ‘মানবিক রাজবাড়ী’ রাতের আধাঁরে দরিদ্রদের ঘরে ঘরে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিলেন ‘ঢাকাস্থ খানখানাপুর সমিতি’র সদস্যরা ঢাকা থেকে পালানো করোনায় আক্রান্ত তরুণীকে পাওয়া গেল রাজবাড়ীতে বসন্তপুরে মাছরাঙা ব্যবসায়ী সমিতির উদ্যোগে হতদরিদ্রদের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

রাজবাড়ীতে দুই বাসের সংঘর্ষে নিহত ৫, আহত ৩০

News

রাজবাড়ী : রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলায় যাত্রীবাহী দু’টি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে পাঁচজন নিহত হয়েছেন এবং আহত হয়েছেন অন্তত ৩০ জন।

বুধবার (‌১৮ ডিসেম্বর) বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে রাজবাড়ীর-কুষ্টিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কের মদাপুর ইউনিয়নের দুর্গাপুরে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতদের মধ্যে চারজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন- রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার মেঘনা গ্রামের জামান শেখের ছেলে মিজান শেখ (২৫), ফরিদপুরের গোপালপুর মুধুরদিয়া গ্রামের আয়ুব আলী মোল্লার ছেলে মিন্টু (৩৫), কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার আবুল কাসেমের ছেলে মিলন (২৭) ও একই উপজেলার ফরমান আলী মন্ডল (৭০)। আহতদের রাজবাড়ী ও ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

দুর্ঘটনাকবলিত বাস দুটি হলো- ঢাকা থেকে কুষ্টিয়াগামী দূরপাল্লার বাস লালন পরিবহন (ঢাকা মেট্রো স ১১-০২৪১) ও লোকাল বাস আরিফ এক্সক্লুসিভ (ঢাকা মেট্রো ব ১৪-০৪৭৬)।

পাংশা হাইওয়ে থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. সাঈদুর রহমান জানান, ‘বুধবার বিকেলে লালন পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস ঢাকা থেকে কুষ্টিয়ার দিকে যাচ্ছিল। অপরদিকে আরিফ পরিবহনের আরেকটি লোকাল বাস কুষ্টিয়া থেকে দৌলতদিয়ায় যাচ্ছিল। পথে দুর্গাপুর এলাকায় বাস দু’টির মুখোমুখি সংর্ঘষে ঘটনাস্থলেই দু’জন যাত্রী নিহত হন এবং আহত হন অন্তত ৩০ জন। খবর পেয়ে রাজবাড়ী ফায়ার সার্ভিস ও পাংশা হাইওয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধারকাজ শুরু করে আহতদের রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে পাঠায়।’

নিহত অপর তিন জনের মধ্যে একজন রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে পৌঁছানোর আগে, একজন হাসপাতালে ও অপরজন ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যান বলে জানান এসআই মো. সাঈদুর রহমান।

লালন পরিবহনের যাত্রী ও নিহত ফরমান আলী মণ্ডলের জামাতা আলম মণ্ডল বলেন, ‘তাঁরা সকাল নয়টায় ঢাকার গাবতলী থেকে লালন পরিবহনের এই এসি বাসে করে রওনা দেন। শুরু থেকেই চালক বাস বেপরোয়াভাবে চালাচ্ছিলেন। এ নিয়ে যাত্রীরা তাঁকে সাবধান করে। কিন্তু তিনি কথা শোনেননি। পথে গোয়ালন্দ মোড়ের গতিরোধকের কাছে একটি পিকআপকেও ধাক্কা দেয়।’

আরিফ এক্সক্লুসিভের যাত্রী হাসিনা বেগম বলেন, ‘তিনি কালুখালীর বাংলাদেশ হাট থেকে এই বাসে করে গোয়ালন্দ যাচ্ছিলেন। সঙ্গে তাঁর মেয়ে ও নাতনিও ছিলেন। তিনি বুকে আঘাত পেয়েছেন।’

সরেজমিনে দেখা যায়, আরিফ এক্সক্লুসিভ তার নির্ধারিত লেন বামে রয়েছে। বাসটির ডান পাশ পুরোপুরি বিধ্বস্ত। আর লালন পরিবহন তার নির্ধারিত লেনের বাইরে রয়েছে। বাসটির সামনের দিক বিধ্বস্ত হয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দা সেলিম মণ্ডল বলেন, বিকট শব্দ শুনে তিনিসহ কয়েকজন ঘটনাস্থলে আসেন। তাঁরা উদ্ধার কাজে অংশ নেওয়ার কিছুক্ষণ পর পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা আসেন।

রাজবাড়ীর সিভিল সার্জন ডা. মাহফুজুর রহমান সরকার বলেন, ‘গুরুতর আহতের মধ্যে অন্তত ১০ জনকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল থেকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। আরও অন্তত ২০ জন সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।’

এদিকে, রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসক দিলসাদ বেগম আহতদের চিকিৎসা ও সার্বিক সহযোগিতার জন্য হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন। এছাড়া আহত ও তাদের স্বজনদের শীত নিবারণের জন্য ৫০টি কম্বল পাঠিয়েছেন তিনি।

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর