,

সর্বশেষ :
শহীদওহাবপুর ও খানখানাপুর ইউনিয়নে বিট পুলিশিং কার্যক্রম শুরু ‘খানখানাপুর প্রবাসী কল্যাণ সংগঠন’-এর উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ রাজবাড়ীর কৃতি সন্তান সাবেক জেলা জজ শামসুল হক এর বড় সন্তান শামসুল আরেফিন করোনা পজেটিভ। ভাড়া বকেয়া : শিক্ষার্থীর মূল্যবান সার্টিফিকেট ভাগাড়ে ফেললেন বাড়িওয়ালা। বসন্তপুর ইউপির মেম্বার জানে আলমের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনৈতিক কর্মকান্ডের অভিযোগ রাজবাড়ীর বসন্তপুর ইউনিয়নে বিট পুলিশিং কার্যক্রম শুরু দৌলতদিয়ায় যৌনকর্মী ও শিশুদের মধ্যে বিস্কুট বিতরণ রাজবাড়ীতে আশঙ্কাজনকভাবে বাড়ছে করোনা সংক্রমণের হার – Facebook Live রাজবাড়ীতে আশঙ্কাজনকভাবে বাড়ছে করোনা সংক্রমণের হার রাজবাড়ীতে গণমাধ্যমকর্মীদের সুরক্ষা সামগ্রী দিলো পারলিন গ্রুপ

দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে বহিরাগত প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা

News

রাজবাড়ী : করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকিতে থাকায় রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে ২০ দিনের জন্য বহিরাগত প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে পুলিশ প্রশাসন।

শুক্রবার (২০ মার্চ) সন্ধ্যা ৬ টা থেকে এই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়। নিষেধাজ্ঞা চলাকালীন যৌনপল্লীর যৌনকর্মীদের প্রত্যেককে খাদ্য নিরাপত্তা হিসেবে ৩০ কেজি চাল ও নগদ ২ হাজার করে টাকা প্রদান করা হবে।

রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান বলেন, করোনাভাইরাস থেকে মানুষকে রক্ষা করতে সরকার সব ধরনের জনসমাগম বন্ধ ঘোষণা করেছে। তারই ধারাবাহিকতায় আমরা রাজবাড়ী জেলায় বিভিন্ন সভা-সমাবেশসহ জনসমাগম বন্ধ করেছি।

তিনি বলেন, দৌলতদিয়া যৌনপল্লী অনেক বড় একটি যৌনপল্লী। এ পল্লীতে বিভিন্ন স্থান থেকে খদ্দের আসা-যাওয়া করে। যে কারণে করোনাভাইরাসের ঝুঁকিতে রয়েছে দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর যৌনকর্মীরা। যৌনকর্মীদের খাদ্যের ব্যবস্থা না থাকায় এই কয়দিন যৌনপল্লী বন্ধ করতে পারিনি। কিন্তু এখন চাল ও নগদ টাকা বরাদ্দ পাওয়ায় শুক্রবার (২০ মার্চ) সন্ধ্যা ৬ টা থেকে সাধারণ মানুষের প্রবেশাধিকার বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে এবং থাকবে ৯ এপ্রিল পর্যন্ত। ৯ এপ্রিলের পর পরিবেশ বুঝে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

রাজবাড়ীর ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মাদ আশেক হাসান বলেন, যৌনকর্মীদের খাদ্য নিরাপত্তার জন্য আমরা ঢাকা বিভাগীয় কমিশনারের কাছে একটি পত্র দেই। সেখান থেকে ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ে বিষয়টি অবগত করলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বিশেষ বরাদ্দ দিয়েছে। যতদিন যৌনপল্লী বন্ধ থাকবে সেই কয়দিনের জন্য প্রত্যেক যৌনকর্মীকে ৩০ কেজি চাল ও নগদ ২ হাজার টাকা করে দেয়া হবে।

এদিকে বর্তমান পরিস্থিতিতে পুলিশ প্রশাসনের এই পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছেন দৌলতদিয়ার যৌনকর্মীসহ সাধারণ মানুষ।

উল্লেখ্য, দেশের এই বৃহৎ যৌনপল্লীতে প্রতিদিন গড়ে সাড়ে তিন হাজার করে মানুষ অবাধে চলাচল করে। এখানে প্রায় সাড়ে ৫ হাজার যৌনকর্মী ও তাদের পরিবারের সদস্যরা রয়েছেন। আর প্রায় ১৩০০ জন যৌনকর্মী ভোটার আছেন।

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর