,

সর্বশেষ :
সাবেক সচিব ও ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার রাজবাড়ীর কৃতি সন্তান বজলুল করিম ও তার স্ত্রী করোনায় আক্রান্ত রাতের আঁধারে দরিদ্রদের বাড়ি বাড়ি ঈদ সামগ্রী পৌঁছে দিলো ‘মানব কল্যাণ ফাউন্ডেশন’ মন্দিরের সামনে গাঁজা খেতে নিষেধ করায় প্রতিমা ভাংচুর বড় ধরণের করোনা ঝুঁকিতে রাজবাড়ী বালিয়াকান্দির নবাবপুর ইউনিয়নের ১১০০ হতদরিদ্র পরিবারের মধ্যে সরকারি ত্রাণ বিতরণ বসন্তপুর ইউনিয়নের ৮০০ হতদরিদ্র পরিবারের মধ্যে সরকারি ত্রাণ বিতরণ হতদরিদ্রদের বাড়ি বাড়ি ঈদের খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিলেন প্রবাসীরা করোনা উপসর্গ নিয়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু, দুই বাড়ি লকডাউন করলেন এসিল্যান্ড রাজবাড়ীর করোনা যোদ্ধা চিকিৎসকদের N95 মাস্ক দিলেন সাবেক জেলা জজ ‘আসমা আসাদ ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন’-এর উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী ও ঈদ উপহার বিতরণ

কথা রাখলেন ওসি স্বপন, বেদেদের মধ্যে বিতরণ করলেন খাদ্য সামগ্রী

News

রাজবাড়ী : করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে কর্মহীন হয়ে চরম মানবেতর জীবনযাপন করছিলেন রাজবাড়ী সদর উপজেলার গোয়ালন্দ মোড়ে (আহলাদিপুর হাইওয়ে থানার পাশে) অস্থায়ী বসতি গড়ে তোলা ৩০ টি বেদে পরিবার। এ অবস্থায় রাজবাড়ী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) স্বপন কুমার মজুমদারের কাছে সরকারি খাদ্য সহায়তা চাওয়ার পরদিনই তারা পেলেন চাল, ডাল ও আলু।

রোববার (২৯) মার্চ বিকেলে বেদে পরিবারগুলোর মধ্যে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করতে যান ওসি স্বপন কুমার মজুমদার। এসময় বেদে পরিবারগুলো তার কাছে খাদ্য সহায়তা চাইলে তিনি পরদিন তাদের খাদ্য সামগ্রী দিবেন বলে আশ্বাস দেন। আশ্বাস অনুযায়ী সোমবার (৩০ মার্চ) সকালে খাদ্য সামগ্রী নিয়ে বেদে পল্লীতে হাজির হন ওসি।

বেদেদের সরদার মোহাম্মদ শেখ বলেন, ‘আমরা ৩০ টি পরিবারের প্রায় ১৫০ জন মানুষ এক মাস ধরে এখানে অস্থায়ী বসতি গড়ে রয়েছি। করোনাভাইরাসের কারণে আমরা এখান থেকে বের হতে পারছিনা, কোন কাজকর্মও করতে পারছি না। আশেপাশের মানুষের গম কেটে ১০০ বা ২০০ টাকা পাচ্ছি। তাই দিয়ে বাজার সদাই করে কোনবেলা খেয়ে কোনবেলা না খেয়ে কোনমতে দিন পার করছি। রোবাবর বিকেলে ওসি স্যার আমাদের মাস্ক দিতে আসলে তাকে কাছে পেয়ে আমরা তার কাছে খাদ্য সহায়তা চাই। স্যার সোমবার আমাদের খাদ্য সামগ্রী দিবেন বলে আশ্বাস দিয়ে যান। আশ্বাস অনুযায়ী সোমবার সকালে স্যার আমাদের ৩০ টি পরিবারের জন্য চাল, ডাল ও আলু নিয়ে এসে বিতরণ করেন। আল্লাহর কাছে দোয়া করি আল্লাহ যেন স্যারকে সবসময় ভালও রাখেন।’

রাজবাড়ী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) স্বপন কুমার মজুমদার বলেন, ‘আমাদের ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি মো. হাবিবুর রহমান স্যার দীর্ঘদিন ধরে বেদে সম্প্রদায় ও তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের জীবনমান উন্নয়নে কাজ করছেন। তাকে দেখে অনুপ্রাণিত হয়ে আমি রোববার বিকেলে ৩০ টি বেদে পরিবারের মধ্যে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করতে আসি। পাশাপাশি তাদের করোনাভাইরাস প্রতিরোধের বিষয়ে সচেতন করি। সেসময় তারা আমার কাছে খাদ্য সহায়তা চান। আমি তাদের সহায়তা প্রদানের আশ্বাস দিয়ে চলে যাই। রাতেই আমি পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান স্যারের সঙ্গে আলোচনা করে তার নির্দেশনায় প্রতিটি বেদে পরিবাররের জন্য পাঁচ কেজি করে চাল, এক কেজি করে ডাল ও দুই কেজি করে আলু কিনে প্যাকেট করি। পরে সকালে তাদের মধ্যে তা বিতরণ করি।

খাদ্য সামগ্রী বিতরণের সময় রাজবাড়ী সদর থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মো. আমিনুল ইসলাম ও খানখানাপুর পুলিশ তদন্তকেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর মো. শহীদুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর