,

সর্বশেষ :
সাবেক সচিব ও ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার রাজবাড়ীর কৃতি সন্তান বজলুল করিম ও তার স্ত্রী করোনায় আক্রান্ত রাতের আঁধারে দরিদ্রদের বাড়ি বাড়ি ঈদ সামগ্রী পৌঁছে দিলো ‘মানব কল্যাণ ফাউন্ডেশন’ মন্দিরের সামনে গাঁজা খেতে নিষেধ করায় প্রতিমা ভাংচুর বড় ধরণের করোনা ঝুঁকিতে রাজবাড়ী বালিয়াকান্দির নবাবপুর ইউনিয়নের ১১০০ হতদরিদ্র পরিবারের মধ্যে সরকারি ত্রাণ বিতরণ বসন্তপুর ইউনিয়নের ৮০০ হতদরিদ্র পরিবারের মধ্যে সরকারি ত্রাণ বিতরণ হতদরিদ্রদের বাড়ি বাড়ি ঈদের খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিলেন প্রবাসীরা করোনা উপসর্গ নিয়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু, দুই বাড়ি লকডাউন করলেন এসিল্যান্ড রাজবাড়ীর করোনা যোদ্ধা চিকিৎসকদের N95 মাস্ক দিলেন সাবেক জেলা জজ ‘আসমা আসাদ ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন’-এর উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী ও ঈদ উপহার বিতরণ

রাজবাড়ীতে ত্রাণ বিতরণে অনিয়মে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মানববন্ধন

News

রাজবাড়ী : রাজবাড়ী সদর উপজেলার চন্দনী ইউনিয়নে সরকারি ত্রাণ আত্মসাতের প্রতিবাদে ইউপি চেয়ারম্যান এ.কে.এম সিরাজুল আলম চৌধুরীর শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৯ মে) সকালে রাজবাড়ী সদর উপজেলার চন্দনী বাসস্ট্যান্ড এলাকায় চন্দনী ইউনিয়নের চার শতাধিক হতদরিদ্র এ মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করেন।

অন্যদিকে হতদরিদ্রদের নামের তালিকা ও ত্রাণ বিতরণে অনিয়েমের প্রেক্ষিতে সোমবার (১৮ মে) চন্দনী ইউনিয়নের চেয়ারম্যানকে শোকজ করেছেন রাজবাড়ী সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাঈদুজ্জামান খান। শোকজের বিষয়টি তিনি নিশ্চিত করেছেন।

মানববন্ধনে হতদরিদ্ররা বলেন, করোনাভাইরাসের সময়ে সরকারি বরাদ্দ থেকে চেয়ারম্যান ত্রাণ আত্মসাতসহ মৎস্যজীবীদের তালিকায় নাম থাকা সত্ত্বেও চাল প্রদান করেননি।

রাজবাড়ী সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাঈদুজ্জামন খান বলেন, চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ত্রাণ বিতরণে অনিয়ম ওঠার তার কাছে লিখিত ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে। তিন কর্মদিবসের মধ্যে তিনি অনিয়মের বিষয়ে ব্যাখ্যা দিবেন।

অভিযোগের প্রেক্ষিতে চন্দনী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এ.কে.এম সিরাজুল আলম চৌধুরী বলেন, ত্রাণ বিতরণের অনিয়মের প্রেক্ষিতে রাজবাড়ী সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আমাকে শোকজ করেছেন। আমি দুই একদিনের মধ্যেই শোকজের জবাব দিবো। তবে আমার বিরুদ্ধে যে অভিযোগে মানববন্ধন করা হয়েছে এটা ষড়যন্ত্র। 

Comments

comments

     এ জাতীয় আরো খবর